kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সিদ্দিকের চোখে হিরো ইন্ডিয়ান ওপেনের চ্যালেঞ্জ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ মার্চ, ২০১৬ ১৭:১৩



সিদ্দিকের চোখে হিরো ইন্ডিয়ান ওপেনের চ্যালেঞ্জ

দিল্লির গলফ কোর্স সিদ্দিকুর রহমানের অন্যতম প্রিয় একটি জায়গা। সেখানেই আবার নতুন চ্যালেঞ্জে নামছেন বাংলাদেশের সেরা এই গলফার।

ঘরের ফেভারিট অনির্বাণ লাহিড়ি ও পাদ্রাইগ হারিংটন ছেড়ে কথা বলবেন না। ১৭ থেকে ২০ মার্চ হিরো ইন্ডিয়ান ওপেনে সিদ্দিক তবু ফেভারিটই থাকছেন। ২০১৩ সালে এই এশিয়ান ট্যুরের শিরোপা জিতেছিলেন সিদ্দিক।

ক্যারিয়ারে দুটি এশিয়ান ট্যুর জিতেছেন সিদ্দিক। একটি এই দিল্লিতে। চারবার এই আসরের দ্বিতীয় স্থান পেয়েছেন। কিন্তু ফর্মটা এখন বাজে যাচ্ছে সিদ্দিকের। ঘরের মাটিতে কুর্মিটোলা গলফ কোর্সে বসুন্ধরা বাংলাদেশ ওপেনে যুগ্মভাবে ৩৫তম হয়েছিলেন। আর এখানে প্রতিপক্ষ অনির্বাণ, হারিংটনরা। অনির্বাণ ২০১৩তে হিরো ওপেনে হয়েছিলেন রানার আপ। এখন আসরের চ্যাম্পিয়ন তিনি। এশিয়ান ট্যুর অর্ডার অব মেরিটও জিতেছেন এই ভারতীয়। এখানে আছেন তিনটি মেজর শিরোপা জেতা হারিংটন।    

সিদ্দিক নিজেকে খুঁজছেন। আশা করছেন, দিল্লিতে ফর্মে ফিরতে পারবেন। খেলতে পারবেন নিজের সেরাটা। "শারীরিকভাবে আমি ঠিক আছি। কিন্তু সঠিক পথে ফিরতে আমাকে কঠিন পরিশ্রম করতে হবে। এখন নিজের খেলা নিয়ে ঝামেলায় আছি। " সিদ্দিক বলেছেন, "প্র্যাকটিস ভালো হচ্ছে। কিন্তু টুর্নামেন্টে খেলতে নামলে ক্লান্ত হয়ে যাচ্ছি। নিজের মনেই সংশয় তৈরি হচ্ছে। কোচের সাথে এসব আলোচনা করেছি। শারীরিকভাবে আরো শক্ত হতে হবে আমাকে। আসলে এদিকটায় একটু ঘাটতি আছে হয়তো। "
 
হিরো ইন্ডিয়ান ওপেনে আরো বাঘা বাঘা খেলোয়াড় থাকছেন। প্রথম ভারতীয় হিসেবে পিজিএ ট্যুর জেতা অর্জুন আতওয়াল থাকবেন। থাকবে রশিদ খান, গগনজিত ভুলার, শিরাগ কুমার, এসএসপি চৌরাসিয়া।

২০০৯, ২০১০ ও ২০১৩ সাল খুব ভালো গেছে সিদ্দিকের। কিন্তু গত দুই মৌসুমে পিঠের ইনজুরির কারণে সমস্যায় আছেন। নিজের সামর্থ্য ও শক্তির অনেকটা হারিয়েছেন। কিন্তু সিদ্দিক মানেন, "সব ক্রীড়াবিদের জীবনে এমন সময় আসে। আমি শিগগিরই আমার সেরা খেলায় ফিরবো। "


মন্তব্য