kalerkantho


বাংলাবান্ধা জিরো পয়েন্টে শুভসংঘের বন্ধুরা

নৌশিন তাবাসসুম অর্ণব ও মেরাজ আহমেদ শিথিল   

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



বাংলাবান্ধা জিরো পয়েন্টে শুভসংঘের বন্ধুরা

জিরো পয়েন্টে দাঁড়িয়ে শুভসংঘের কয়েকজন বন্ধু

তীব্র শীতের মধ্যেই সাভারের গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিক্যাল কলেজের ২১তম ব্যাচের শিক্ষার্থীরা গ্রামীণ শিক্ষা কার্যক্রমের অংশ হিসেবে দীর্ঘ এক মাস কাটিয়ে এসেছে দিনাজপুর জেলার কাহারোল উপজেলায়। দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা যখন পঞ্চগড়ে, তখনই শুভসংঘ গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিক্যাল কলেজ শাখার বন্ধুরা কুয়াশার বাধা কাটিয়ে হাজির হয় হিমালয়ের পাদদেশে অবস্থিত বাংলাদেশের সর্ব-উত্তরের উপজেলা তেঁতুলিয়ার বাংলাবান্ধা ইউনিয়নের জিরো পয়েন্টে। স্থানীয় মানুষজন থেকে শুভসংঘের বন্ধুরা জানতে পারে, বাংলাবান্ধার জন্য মহানন্দা নদী প্রকৃতির এক মহান দানের মতো। মহানন্দার স্বচ্ছ পানি যেমন ফসলের মাঠে এনেছে প্রাণ, তেমনি নদী থেকে আহরিত কালো পাথর কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছে হাজারো মানুষের। এসব পাথর রাস্তা তৈরির প্রধান কাঁচামাল হিসেবে হয়। স্থানীয় ভ্যানে চেপে শুভসংঘের সদস্যরা ঘুরে আসে চা বাগান, কমলা বাগান এবং তেজপাতা বাগান। এখানে রয়েছে এক অন্য প্রজাতির বাঁশ, যা স্থানীয়ভাবে নেপালি বাঁশ বা হলুদ বাঁশ নামে পরিচিত। প্রকৃতিকে আপন করে নিতে সেদিন শুভসংঘ গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিক্যাল কলেজ শাখার সভাপতি আব্দুল্লাহ বিন হাফিজ সাজু, অর্থ সম্পাদক সোহানুর রহমান তুহিন, বিজ্ঞান ও গবেষণা সম্পাদক ফারজানা লাবণ্য রিতু, কার্যকরী সদস্য-২ তাহারাত আফরিন মিতু ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন গোলাম সারোয়ার, শাহরিয়ার শহীদ ও নাবিলা ইসলাম।

 


মন্তব্য