kalerkantho


‘মুক্তিযুদ্ধের পর দেশ গঠনে পরাণের অবদান প্রশংসনীয়’

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০



‘মুক্তিযুদ্ধের পর পরই শামসুন্নাহার রহমান পরাণ ঘাসফুল প্রতিষ্ঠা করেন এবং দেশ পুনর্গঠনে প্রশংসনীয় ভূমিকা রাখেন। পরবর্তীতে বীরাঙ্গনাদের মুক্তিযোদ্ধা স্বীকৃতি অর্জনে তিনি ব্যাপক প্রচারণার পাশাপাশি নানামুখি আন্দোলন চালিয়ে যান।’

সোমবার চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের বঙ্গবন্ধু হলে ঘাসফুল-প্রতিষ্ঠাতা শামসুন্নাহার রহমান পরাণের ৪র্থ মৃত্যুবার্ষিকীতে স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী এ কথা বলেন। ঘাসফুল নির্বাহী পরিষদের চেয়ারম্যান ড. মনজুর-উল-আমিনের সভাপতিত্বে সভায় আলোচক ছিলেন একুশে পদকপ্রাপ্ত কবি-সাংবাদিক আবুল মোমেন। মফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক

মোহাম্মদ শহীদুল ইসলাম ও ইলমার প্রধান নির্বাহী জেসমিন সুলতানা পারু। স্বাগত বক্তব্য দেন সংস্থার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আফতাবুর রহমান জাফরী।

আরো বক্তব্য দেন মরহুমার বড় মেয়ে পারভীন মাহমুদ, শাহাব উদ্দিন নিপু, আনজুমান বানু লিমা প্রমুখ।



মন্তব্য