kalerkantho


চট্টগ্রাম-২

নৌকার মনোনয়নপ্রত্যাশী ২৬ জন

আবু এখলাছ ঝিনুক ফটিকছড়ি (চট্টগ্রাম)   

১৬ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



চট্টগ্রাম-২ ফটিকছড়ি আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী ২৬ জন। ফটিকছড়ির ইতিহাসে এতসংখ্যক নেতাকে অন্য কোনো সংসদ নির্বাচনে দলের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করতে দেখা যায়নি। এ নিয়ে উপজেলার সর্বত্র চলছে আলোচনা-সমালোচনা।

আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র যাঁরা নিলেন : ফটিকছড়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান তৌহিদুল আলম বাবু, সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এ টি এম পেয়ারুল ইসলাম, আফতাব উদ্দিন চৌধুরী, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক ফখরুল আনোয়ার, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ সদস্য আখতার উদ্দিন মাহমুদ পারভেজ, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মোহাম্মদ শাহজাহান, সাবেক সংসদ সদস্য মরহুম রফিকুল আনোয়ারের মেয়ে খাদিজাতুল আনোয়ার সনি, সাবেক ছাত্রনেতা এইচ এম আবু তৈয়ব, উপজেলা চেয়ারম্যান সমিতির সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম, জানে আলম শিপন, ব্যারিস্টার কাজী মোহাম্মদ তানজীবুল আলম, সৈয়দা রাজিয়া মোস্তফা, সাদাত আনোয়ার সাদী, বেলাল মুহাম্মদ নূরী, হেলাল উদ্দীন নূরী, ড. ফয়সল কামাল, ইঞ্জিনিয়ার রাজীব বড়ুয়া, মিজানুর রহমান, সাবেক চেয়ারম্যান শাহ আলম সিকদার, রিফাত আক্তার নিশু, অ্যাডভোকেট ছালামত উল্লাহ চৌধুরী শাহীন, আশিষ কান্তি দে, মাহাবুবুল আলম, হাবীব খান, এম আর আজিম ও সাবেক চেয়ারম্যান গোলাফ রহমান।

জানা গেছে, ফটিকছড়ি থেকে আওয়ামী লীগের এতসংখ্যক মনোনয়নপ্রত্যাশী হওয়ায় তৃণমূল পর্যায়ে হাস্যরসের সৃষ্টি হয়েছে। অনেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করে আলোচনায় আসার চেষ্টা করলেও আওয়ামী লীগের মতো প্রাচীন রাজনৈতিক সংগঠনের জন্য তা কোনোভাবেই সমীচিন নয় বলে মন্তব্য করেন কেউ কেউ।

ফটিকছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিন মুহুরী বলেন, ‘আওয়ামী লীগ একটি মর্যাদাসম্পন্ন রাজনৈতিক দল। এ দলের মনোনয়নপত্র যে কেউ নিচ্ছেন। এটি সত্যিই দুঃখজনক। ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হওয়ার যোগ্যতা যাঁদের নেই, এমন অনেকে দলের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।’



মন্তব্য