kalerkantho

র‌্যাবের অভিযান

ইয়াবাসহ আটক ৬

ফেনী প্রতিনিধি   

১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



ফেনীতে র‌্যাব-৭ এর ক্রাইম প্রিভেনশন কম্পানির সদস্যদের হাতে পৃথক ঘটনায় ইয়াবাসহ ৬ জন আটক হয়েছে।  র‌্যাব জানায়, মঙ্গলবার গভীর রাতে গোপনে পাওয়া খবরের ভিত্তিতে র‌্যাব সদস্যরা ফেনীর মহিপালের রেঙ্গুনী সুইটসের সামনে অভিযান চালান। এ সময় মুন্সীগঞ্জ জেলার লৌহজং উপজেলার কাজীর পাগলা গ্রামের আহমদ আলীর ছেলে মো. লিটন, নাগর আলীর ছেলে মো. মতিন ও মো. কাশেমের ছেলে মো. আতিয়ারকে আটক করা হয়। পরে তাঁদের দেহ তল্লাশি করে ১৯ হাজার ইয়াবা জব্দ করে র‌্যাব।

এদিকে একই দিন রাত ১টার দিকে র‌্যাব সদস্যরা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মিরসরাইয়ের ইছামতি এলাকায় অভিযান চালায় র‌্যাব। এ সময় এস আলম পরিবহনের একটি বাস তল্লাশি করে মুন্সীগঞ্জ জেলার লৌহজং উপজেলার কাজিরপাগলা গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে মো. ইমরান, রজব আলীর ছেলে মো. সোহাগ ও ইমান আলীর ছেলে মো. সোহাগকে আটক করা হয়। পরে তাদের দেহ তল্লাশি করে ১২ হাজার ৩০০ ইয়াবা জব্দ করা হয় বলে জানান ফেনীস্থ ক্যাম্পের অধিনায়ক, স্কোয়াড্রন লিডার শাফায়াত জামিল ফাহিম।

 

চকরিয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ গ্রেপ্তার ৩

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি জানান : ৬ কেজি গাঁজাসহ তিন মাদক কারবারিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার ভোররাতে চকরিয়ার বরইতলী নতুন রাস্তার মাথায় অভিযান চালিয়ে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন থানার উপ-পরিদর্শক আলমগীর আলম।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন চকরিয়া পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের হালকাকারা জালিয়াপাড়ার মৃত খুইল্যা মিয়ার ছেলে মো. খোরশেদ আলম ওরফে কানা খোরশেদ (৩৮), তাঁর স্ত্রী নূরী বেগম (২৮) এবং উপজেলার কাকারা ইউনিয়নের বার আউলিয়া নগর গ্রামের মো. আজিজের স্ত্রী রুবি আক্তার (২৪)। 

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে পুলিশ বরইতলী নতুন রাস্তার মাথা থেকে খোরশেদ আলম ও তার মাদক সিন্ডিকেট সদস্যদের গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তাদের হেফাজত থেকে জব্দ করা হয় ৬ কেজি গাঁজা। এ ব্যাপারে তাঁদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করা হয়েছে।’



মন্তব্য