kalerkantho


বান্দরবানে জমজমাট সাংস্কৃতিক রজনী

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান   

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



বান্দরবানে জমজমাট সাংস্কৃতিক রজনী

অনুষ্ঠানে গান করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং। ছবি : কালের কণ্ঠ

জেলার নবীন-প্রবীণ শিল্পীদের অংশগ্রহণে মাতোয়ারা ছিল শনিবার রাত। সন্ধ্যায় শুরু হয়ে শিল্পী-কুশলীদের নানা পরিবেশনার মধ্য দিয়ে মধ্যরাত পেরিয়ে অনুষ্ঠান শেষ হয় রাত ১টায়।

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রীর বিশেষ উদ্যোগে বান্দরবানের শিল্পীসমাজ স্থানীয় ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট (কেএসআই) অডিটোরিয়ামে ‘শিল্পের সৌরভে গৌরবে’ নামের এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। জেলা প্রশাসক দাউদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার জাকির হোসেন মজুমদার, ডিজিএফআইয়ের অধিনায়ক লে. কর্নেল হাসান মাসুদ এবং বান্দরবান পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ ইসলাম বেবী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন।

প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর বলেন, ‘শিল্পীদের কোনো বিশেষ জাতিসত্তা-অঞ্চল বা সম্প্রদায়গত পরিচয় থাকা উচিৎ নয়। মানুষের কল্যাণ নিশ্চিত করে সুন্দর আগামী গড়ার লক্ষ্যেই শিল্পীরা স্বপ্ন দেখেন।

বাংলাদেশের মুক্তি সংগ্রামে শিল্পীরা কণ্ঠযুদ্ধে বিশ্ব জনমত গড়ে তোলার কথা উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘দ্রুত উন্নয়নশীল বাংলাদেশকে বিশ্ব নেতৃত্বের স্টিয়ারিংয়ে বসানোর জন্যে জাতীয় ঐক্য গড়ে তোলার লক্ষ্যে শিল্পীরা কাজ করবেন।’

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন আয়োজক পরিষদের আহ্বায়ক চ থুই প্রু এবং সদস্য সচিব রাজেশ দাশ। এতে সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্যে দীপ্তি কুমার বড়ুয়া এবং প্রয়াত ২০ শিল্পী-সংগঠককে সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়।

দ্বিতীয় পর্বে বিভিন্ন সংগঠনের শতাধিক নবীন-প্রবীণ শিল্পী সংগীত ও নৃত্য পরিবেশন করেন।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর নিজেও সংগীত পরিবেশন করেন। কয়েকজন নবীন শিল্পী তাঁর সঙ্গে দ্বৈত গানে অংশ নেন।

বান্দরবানের পৌর মেয়র মোহাম্মদ ইসলাম বেবী দম্পতির অভিনীত নাট্যাংশ এবং বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য লক্ষ্মীপদ দাশের আঞ্চলিক গান সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করে।



মন্তব্য