kalerkantho


বিশ্বের সবচেয়ে বড় সাহিত্যিক জোচ্চুরি কি ওশিয়ান?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ অক্টোবর, ২০১৬ ১৮:২৫



বিশ্বের সবচেয়ে বড় সাহিত্যিক জোচ্চুরি কি ওশিয়ান?

ওশিয়ান হার্প বাজাচ্ছেন, ১৮১০ সালে জোহান পিটার ক্রাফটের চিত্র

উত্তরের হোমার বলা হয় কবি ওশিয়ানকে। জানা যায়, আইরিশ বীর-পুরুষ ও বীরাঙ্গনাদের উপাখ্যান অবলম্বন করে নানা সাহিত্য রচনা করেছিলেন তিনি। তবে সম্প্রতি গবেষকরা জানাচ্ছেন, এ কবির অস্তিত্বই নেই। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে ইন্ডিপেনডেন্ট।
প্রাচীন আয়ারলাণ্ডের অনেক চারণ ও কবি, গাথা এবং গদ্যকাব্য রচনাকারী হিসেবে ওশিয়ানের (Ossian) নাম পাওয়া যায়। তাকে তৎকালীন কবিদের মধ্যে অন্যতম প্রধান বলেও দাবি করেন অনেকে। তাকে অভিহিত করা হয় তৃতীয় শতকের কবি হিসেবে। তবে তার সাহিত্য আবিষ্কৃত হয় ১৭ শতকে। সে সময় জেমস ম্যাকফেরসন এগুলো ‘আবিষ্কারের’ দাবি করেন এবং তা প্রকাশ করেন।
বহুযুগ ধরেই তৃতীয় শতকের কবি ‘উত্তরের হোমার’ খ্যাত ওশিয়ানের বিস্তারিত জানা যায়নি। তবে তার সাহিত্য পাওয়া যেত।

আর এসব সাহিত্যের সঙ্গে প্রাচীন গ্রিসের কবি হোমারের সাহিত্যের মিল পাওয়া যেত। তবে বিষয়টি নিয়ে সে সময় খুব একটা উচ্চবাচ্য হয়নি।
সম্প্রতি গবেষকরা বলছেন, ওশিয়ানের ঘটনাটি বিশ্বের সবচেয়ে বড় সাহিত্যিক ধাপ্পাবাজি।   কারণ তার সাহিত্য মূলত হোমারের সাহিত্যেরই ভাষান্তর।
সম্প্রতি গবেষকরা বিভিন্ন পদ্ধতি ব্যবহার করে নির্ণয় করতে পেরেছেন যে, হোমারের সাহিত্যের সঙ্গে এ সাহিত্যের মিল রয়েছে। আর এ মিল এতই বেশি যে বিজ্ঞানীরা প্রায় সন্দেহমুক্তভাবেই বলছেন, ওশিয়ানের অস্তিত্ব নেই।
মূলত ওশিয়ানের সাহিত্য বলে যা প্রকাশ করা হয়েছিল তা হতে পারে ম্যাকফেরসনের সৃষ্টি। কারণ ম্যাকফেরসন নিজেও একজন কবি ছিলেন। তবে ঠিক কী কারণে তিনি নিজের নামে তা প্রকাশ না করে ওশিয়ানের নামে প্রকাশ করলেন, সেটি এক রহস্য।

 


মন্তব্য