kalerkantho


এই আছেন, এই নেই

২৬ বছরের ক্যারিয়ারে বেছে বেছে কাজ করেছেন। তাই তাঁর বেশির ভাগ কাজই মনে রাখার মতো। আগামীকাল ‘হেলিকপ্টার ইলা’র মুক্তি উপলক্ষে কাজলের স্ক্রিপ্ট বাছাই, সিনেমা ভাবনা নিয়ে লিখেছেন মামুনুর রশিদ

১১ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০



এই আছেন, এই নেই

‘ইংলিশ ভিংলিশ’-এ শ্রীদেবী, ‘বাকেট লিস্ট’-এ মাধুরী দীক্ষিত, ‘তুমহারি সুলু’তে বিদ্যা বালান কিংবা ‘হিচকি’তে রানী মুখার্জি একাই ছবিকে টেনেছিলেন। সবই মধ্যবয়সী এক নারীর নিজেকে নতুন করে আবিষ্কারের গল্প। ‘দিলওয়ালে’ ব্যর্থতার পর কাজলও কি একই পথে হাঁটছেন? কারণ আগামীকাল মুক্তির অপেক্ষায় থাকা ‘হেলিকপ্টার ইলা’য় তিনি ছাড়া বড় তারকা নেই। অভিনেত্রী অবশ্য বলছেন, তিনি ছবি বাছাইয়ের ক্ষেত্রে একটাই ফর্মুলা মেনে চলেন, সেটা হলো ভালো স্ক্রিপ্ট। এ জন্যই তিন থেকে চার বছর পর পর পর্দায় দেখা যায় তাঁকে। ‘ঘর-সংসার, পড়াশোনা নিয়ে আমি ভালোই আছি। আমাকে দিয়ে অভিনয় করাতে হলে ভালো স্ক্রিপ্ট হতে হবে। খুবই ভালো, যাতে আমি রাজি হতে বাধ্য হই,’ বলেন তিনি। পড়ুয়া হিসেবে পরিচিত হলেও কাজল কিন্তু সিনেমার স্ক্রিপ্ট পড়তে পছন্দ করেন না, শুনতে ভালোবাসেন! ‘ছবির ক্ষেত্রে একটাই ফর্মুলা আমি বুঝি, সেটা হলো আনন্দ। এত কষ্ট করে যে দর্শক হলে আসবেন, তাঁর জন্য বিনোদনের সব কিছু থাকতে হবে। যে ছবিতে তা থাকে, তেমন ছবি আমি করি,’ বলেন অভিনেত্রী। ছবিতে কাজল এক টিনএজারের মা। বাস্তব জীবনেও অভিনেত্রীর টিনএজার মেয়ে আছে। ছবির প্রযোজক স্বামী অজয় দেবগণ। সব মিলিয়ে ‘সুবিধাজনক অবস্থা’ বলেই কি এই ছবি করছেন? ‘শুরুতে অজয় ছবিটা প্রযোজনা করবে ঠিক ছিল না। স্ক্রিপ্ট আসার পর আমি শুনেই পাগল হয়ে যাই। অসাধারণ গল্প। ইলার বোকামি, কৌতুক—সব শুনে চরিত্রটা চোখের সামনে দেখতে পাচ্ছিলাম। অজয়কে বলি ছবিটা করতে। তবে টিনএজারের মা হওয়ায় চরিত্রটি করতে অবশ্যই বাড়তি সুবিধা হয়েছে,’ বলেন তিনি।

দুই যুগের বেশি সময় ধরে বলিউডের অন্যতম রোমান্টিক অভিনেত্রী হিসেবে পরিচিতি কাজলের। তবে এখন যেকোনো চরিত্র, এমনকি নেতিবাচক চরিত্রেও আপত্তি নেই তাঁর, ‘এখন তো কত ধরনের ছবি হচ্ছে। ভালো লাগলে সব ধরনের চরিত্রই করতে রাজি। বৈচিত্র্যের জন্যই দক্ষিণে গিয়ে কাজ করেছি।’ তবে নিজে যে ধরনের ছবি দেখতে পছন্দ করেন না, সে ধরনের কাজ করতেও চান না বলে জানান। বলিউডে পড়ুয়া হিসেবে নাম আছে কাজলের। তেমন আরেকজন টুইঙ্কল খান্না এখন লেখক হিসেবে নাম কামিয়েছেন বেশ। কাজলও কি সেই পথে যাবেন? ‘মনে হয় না। অনেকে স্মৃতিকথা লিখতে বলেছে। আমাকে দিয়ে এগুলো হবে না। আমি পড়তেই বেশি মজা পাই,’ বলেন তিনি। ‘হেলিকপ্টার ইলা’ তৈরি হয়েছে গুজরাটি নাটক অবলম্বনে। এই ছবি দিয়ে চার বছর পর পরিচালনায় ফিরছেন প্রদীপ সরকার। বাঙালি এই পরিচালক ছবিতে সমাবেশ ঘটিয়েছেন একঝাঁক বাঙালি অভিনেতার, যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য ঋদ্ধি সেন ও টোটা রায়চৌধুরী।



মন্তব্য