kalerkantho


এশিয়া কাপ উঠবে বাংলাদেশের হাতে!

চলছে এশিয়া কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট। আজ বিকেলে বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে আফগানিস্তানের। কে হবে এবারের বিজয়ী? জানাচ্ছেন টেলিভিশনের দুই ক্রিকেট সঞ্চালক জান্নাতুল ফেরদৌস পিয়া ও মারিয়া নূর

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



এশিয়া কাপ উঠবে বাংলাদেশের হাতে!

গতবারের না পাওয়াটা মেটাবে বাংলাদেশ

জান্নাতুল ফেরদৌস পিয়া

গতবারের রানার্স-আপ দল বাংলাদেশ। যেভাবে শুরুটা করল তাতে বাংলাদেশের সম্ভাবনা খুবই বেশি। আমার কেন যেন মনে হয় এবারও গত বছরের মতো একই দল ফাইনাল খেলবে—ভারত আর বাংলাদেশ। আর গতবারের না পাওয়াটা মেটাবে বাংলাদেশ।

ক্রিকেট সম্পর্কে খুব যে বেশি জ্ঞান রাখি তা নয়, তবে রাখার চেষ্টা করি। ক্রিকেট বিষয়ক বিভিন্ন ওয়েবসাইট, ইউটিউবের সাহায্য নিই। তা ছাড়া উপস্থাপনা করার সময় স্টুডিওতে অনেক অভিজ্ঞ ব্যক্তি থাকেন, তাঁদের কাছ থেকেও জানার চেষ্টা করি। বাংলাদেশ দলের সব ক্রিকেটারই আমার প্রিয়, তবে মাশরাফি বিন মর্তুজা একটু বেশিই প্রিয়।

 

মোরালি বেশ স্ট্রং বাংলাদেশ

মারিয়া নূর

বাংলাদেশ দল যখন খেলে তখন আসলে বিশ্লেষণের দিকে মন যায় না। আবেগটাই বেশি কাজ করে। বিশ্লেষণের ঊর্ধ্বে গিয়ে এগিয়ে রাখি বাংলাদেশকে। কে কত বড় দল সে হিসাবটা করি না। প্রথম ম্যাচেই বাংলাদেশ তাদের গর্জনটা শুনিয়েছে। এরপর যারা খেলবে তারা বাংলাদেশকে হিসাব করেই খেলবে। এমন উড়ন্ত সূচনার পর মোরালি বেশ স্ট্রং বাংলাদেশ। তবে হ্যাঁ, ভারতের মতো শক্তিশালী দলও আছে। দেখা যাক, তাদের সঙ্গে বাংলাদেশের লড়াইটা কেমন হয়। আশা করছি, শুরুটার মতো শেষটাও চমত্কারভাবেই শেষ হবে।

মুশফিককে প্রথম ম্যাচে দেখে মনে হচ্ছে হি ইজ ভেরি মাচ ডিটারমাইন্ড। আমাদের একটা সমস্যা হয়ে গেছে, সিনিয়ররা সব সময় পারফর্ম করে যাচ্ছে। তামিম ইকবাল পুরো টুর্নামেন্টে থাকবে না, এটা একটু হলেও মনোবল দুর্বল করবে। জুনিয়র প্লেয়ারদের আরো দায়িত্ব নিয়ে খেলতে হবে। প্রথম ম্যাচের মোহাম্মদ মিঠুন একটা লাইফ পাওয়ার পর পারফর্ম করলেন। যেভাবে আউট হলেন সেটা আবার মানা যায় না। আমি জানি, এবারও সেই সিনিয়ররাই ভালো খেলবে। তবু প্রত্যাশা করি যেন এক-দুজন জুনিয়র অবাক করা কিছু করে দেখায়।



মন্তব্য