kalerkantho


কী বলেন মহাপরিচালক

আর্কাইভের যাত্রা শুরু হলো মাত্র

মুখোমুখি বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভের বর্তমান মহাপরিচালক শচীন্দ্র নাথ হালদার

১৭ মে, ২০১৮ ০০:০০



আর্কাইভের যাত্রা শুরু হলো মাত্র

আর্কাইভের বর্তমান কার্যক্রম কতটা সন্তোষজনক?

৪০ বছরে অনেক চড়াই-উতরাই পেরিয়ে আমরা এ জায়গায় এসেছি। প্রথম কিউরেটর এ কে এম আব্দুর রউফ থেকে শুরু করে আমার মেয়াদ পর্যন্ত বিবেচনা করলে বলতে হয়, ফিল্ম আর্কাইভের যাত্রা এইমাত্র শুরু হলো। কারণ এত দিন আমাদের নিজস্ব ভবন ছিল না। ছিল না সংরক্ষণ করার পর্যাপ্ত ব্যবস্থাও। এখন সেটা হয়েছে। ফিল্ম সংরক্ষণ করা অনেক বড় একটা দায়িত্ব। এই দায়িত্ব পালন করার জন্য লোকবল ও পারিপার্শ্বিক অবস্থাও আগে ছিল না। ৪০ বছর পরে এসে বলব, আমরা এখন সক্ষম।

 

অভিযোগ আছে, সঠিকভাবে সংরক্ষণ না করায় অনেক চলচ্চিত্র নষ্ট হয়েছে।

এক বছর আগেও আমাদের প্রপার সংরক্ষণ ব্যবস্থা ছিল না। আগে ফিল্ম নষ্ট হলে রিকভার করতে পারতাম না। এখন আমাদের ফিল্ম হসপিটাল আছে। প্রায় নষ্ট হয়ে যাওয়া ফিল্মগুলোও রিকভার করতে পারি। আগে ভাড়া বাড়িতে থাকায় আমরা সঠিকভাবে কার্যক্রম চালাতে পারিনি। এ জন্য অনেক ছবির প্রিন্ট ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সে জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করা ছাড়া আমাদের আর কোনো উপায় নেই।

 

সংগৃহীত ছবির সংখ্যা এত কম কেন?

নিয়ম হচ্ছে ফিল্ম সেন্সর পাওয়ার পরপরই এক কপি আর্কাইভে দেওয়ার। কিন্তু সচেতনতার অভাবে এটা হয় না। আবার আর্কাইভে সমস্যা থাকার কারণেও আমরা ততটা উদ্যোগী হইনি। এখন আমাদের ছয়টা ভল্ট আছে, যেগুলোতে ভালোভাবে ছবি সংরক্ষণ করা যাবে। এখন আর কোনো সমস্যা হবে না।



মন্তব্য