kalerkantho


রুদ্ধশ্বাস সময়

ইংরেজির মতো হিন্দি ওয়েব সিরিজও এখন জনপ্রিয় হচ্ছে। এরই মধ্যে আমাজনের ‘ব্রিদ’ নিয়ে শোরগোল শুরু হয়েছে। সিরিজটি নিয়ে লিখেছেন লতিফুল হক

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



রুদ্ধশ্বাস সময়

আর মাধবনের নাম বললেই বলিউড দর্শকদের মনে ভেসে ওঠে ‘রেহনা হ্যায় তেরা দিল ম্যায়’-এর সেই রোমান্টিক হিরোর মুখ। তবে এরপরের ১৭ বছরে ক্যারিয়ারে নানা উত্থান-পতন গেছে, রোমান্টিক হিরো পরিচয় ভেঙে মাধবন করেছেন নানা ব্যতিক্রমী চরিত্রও। তাঁর একটি ‘ব্রিদ’-এর ড্যানি। আমাজন ইন্ডিয়ার এই সিরিজ দিয়েই শুরু হয়েছে তাঁর ওয়েব সিরিজ দুনিয়ায় যাত্রা। যেখানে ‘মন্দ’ লোক। এই সাসপেন্স থ্রিলারের গল্পের পটভূমি ১৯৯০-এর দশকের মুম্বাই। ড্যানির একমাত্র ছেলের জটিল এক অসুখ ধরা পড়ে, করতে হবে ফুসফুস প্রতিস্থাপন। ফুসফুসদাতাও তৈরি। মুশকিল হলো ছেলের সিরিয়াল চার নম্বরে। সিরিয়াল আসতে আসতে সে বাঁচবে তো? ড্যানির অবস্থা পাগলপ্রায়। এদিকে শহরে রহস্যময়ভাবে খুন হয়। এর সঙ্গে ড্যানির সম্পর্ক আছে কি? মাঠে নামে

 আপাতদৃষ্টিতে মদ্যপ কিন্তু খুবই দক্ষ এক পুলিশ অফিসার কবীর। যে চরিত্র করেছেন অমিত সাধ, যিনি আগে ‘কাই পো চে’ দিয়ে নজর কেড়েছিলেন। এ ছাড়া ‘ব্রিদ’-এ আরো অভিনয় করেছেন স্বপ্না পাব্বি, নীনা কুলকার্নি প্রমুখ।

গেল জানুয়ারিতেই একসঙ্গে ২০০টি দেশে উন্মুক্ত হয় আমাজনের এই ওয়েব সিরিজ। এখন পর্যন্ত প্রায় সব রিভিউতেই ভালো নম্বর পেয়েছে সমালোচকদের কাছে। ২০১৭ সালে ক্রিকেট নিয়ে সিরিজ ‘ইনসাইড এজ’ দিয়ে মৌলিক হিন্দি ওয়েব সিরিজ শুরু করে আমাজন ইন্ডিয়া। বিবেক ওবেরয় ও রিচা চাড্ডা অভিনীত সিরিজটি জনপ্রিয় হওয়ার পর থেকেই পরিকল্পনা শুরু হয় ‘ব্রিদ’-এর। গল্প লেখা আর পরিচালনার কাজটি করেছেন মায়ঙ্ক শর্মা। যিনি আগে ‘সান্তা বান্তা প্রাইভেট লিমিটেড’, ‘টেবিল নাম্বার ২১’ ইত্যাদি ছবির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন।

প্রথম ওয়েব সিরিজ সফল হওয়ায় আনন্দিত মাধবন, ‘দেখুন, বড় পর্দার আবেদন ফুরাবে না। তবে এখন সময় ওয়েব সিরিজের, এই আবেদন আপনি এড়াতে পারবেন না। প্রস্তাব পাওয়ার পর মনে হলো, এটা এমন একটা মাধ্যম যেখানে আমি নিজের পরিশ্রমটা দিতে চাইব।’ তবে অভিনেতা ওয়েব সিরিজ পেলেই যে লুফে নেবেন তা নয়। কাজ করবেন কেবল অভিনব কোনো বিষয় পেলেই, “ওয়েব ভবিষ্যৎ হলেও সব কিছু এখানে করা সম্ভব না। ‘পদ্মাবৎ’-এর মতো কিছু কি ওয়েবে দেখা মানায়?

এ সিরিজের গল্প শুনেই মনে হয়েছিল, বাহ্, এ তো দেখি চমকের পর চমক। শুনতে শুনতে মনে হয়েছিল নিজেই যেন রুদ্ধশ্বাস এক যাত্রার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি। তখনই এটা করব বলে ঠিক করি।”



মন্তব্য