kalerkantho


রেশমীর খবরাখবর

১৬ ফেব্রুয়ারি ভিডিওতে প্রকাশ পাবে রেশমী মির্জার নতুন গান ‘স্বপ্ন ভেঙ্গে চুরমার’। আরো নানা কাজ নিয়ে ব্যস্ত তিনি। লিখেছেন রবিউল ইসলাম জীবন। ছবি তুলেছেন অরণ্য জিয়া

১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



রেশমীর খবরাখবর

স্বপ্ন ভেঙ্গে চুরমার

‘ঘুম ভাঙ্গে ভাঙ্গা কাচে/ভাঙ্গা বুকে স্বপ্ন নাচে/খোদা দিলো, খোদা নিলো, জলন্ত জখম দুচোখে তার/স্বপ্ন ভেঙ্গে চুরমার’—‘স্বপ্ন ভেঙ্গে চুরমার’ গানের মুখ। লোকগানের শিল্পী হিসেবেই পরিচিত রেশমী মির্জার দ্বিতীয় আধুনিক গান। কথা ও সুরের পাশাপাশি ভিডিও নির্মাণ করেছেন জুলফিকার জাহিদী। সংগীতায়োজনে মীর মাসুম। প্রকাশ করবে আদ্রিয়ান ফিল্মস এন্টারটেইনমেন্ট। রেশমী বলেন, ‘লোকগান করলেও আধুনিক গানের প্রতিও আলাদা একটা টান আছে। জুলফিকার ভাইয়ের গানটি শোনার পরই মনে ধরে যায়। আধুনিক হলেও কথা-সুর-সংগীতায়োজনের ক্ষেত্রে তাঁরা আমার কণ্ঠের বিষয়টি মাথায় রেখেছেন। গাওয়ার অভিজ্ঞতাও চমৎকার। ঘণ্টা দেড়েকের মধ্যে পুরো ভয়েস দিয়েছি। সোনারগাঁর পানাম সিটি এবং তিন শ ফুটে ভিডিওটির শুটিং হয়েছে। মডেল হয়েছেন জাহারা মিতু। সব মিলিয়ে ভালো একটা কাজ দাঁড়িয়েছে।’

 

পোড়ামন এবং আরো ভিডিও

‘রেশমী ও মাটি’ অ্যালবামে ‘পোড়ামন’ শিরোনামের একটি গান করেছিলেন। গানটির অডিওর জন্য সবার কাছ থেকে ভালো সাড়া পেয়েছিলেন। এবার সেই গানটির ভিডিও নিয়ে আসছেন। নির্মাতা শাহরিয়ার পলক। ইফতেখার সুজনের কথায় সুর ও সংগীত মীর মাসুমের। গায়িকা বলেন, “অ্যালবামটি (‘রেশমী ও মাটি’) শুরুতে আরেকটি প্রতিষ্ঠানকে দিয়েছিলাম। কিন্তু নামে মাত্র অ্যালবামটি বের করলেও তারা গানগুলো প্রমোট করেনি। ভিডিও করে দেওয়ার কথা থাকলেও দেয়নি। এবার অ্যালবামটি জিরো রেকর্ডসকে দিয়েছি। তারাই ভিডিওটি করে দিয়েছে। এরপর ‘জল খেলা’ এবং ‘খোদা’ গানটিরও ভিডিও করবে।” অটামনাল মুনের সুরে ‘পাগল’ শিরোনামের একটি গানে কণ্ঠ দিয়েছেন রেশমী। সেটিরও ভিডিও করা হবে। প্রকাশ পাওয়ার কথা আসছে পহেলা বৈশাখে।

 

ব্যান্ড

‘রেশমী ও মাটি’ অ্যালবামের কাজ করতে গিয়েই সেই নামে ব্যান্ড গড়ে ফেলেন রেশমী। একক কাজের পাশাপাশি ব্যান্ডের সঙ্গেও কাজ করেন নিয়মিত। শুরুতে ব্যান্ডের লাইন আপে ছিলেন—রেশমী (ভোকাল), বিকাশ রায় (ড্রামস), জাকির রানা (বেইস), সজীব চৌধুরী (লিড) এবং মাখন (অ্যাকুস্টিক)। তবে কিছুদিন আগে পরিবর্তন এসেছে লিডে। সজীব চৌধুরীর জায়গায় যোগ দিয়েছেন শুভ্র। চলতি বছর ব্যান্ডের একাধিক সিঙ্গল প্রকাশ করবেন বলেও জানান এই লোককন্যা।

 

স্টেজ

ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই স্টেজে নিয়মিত খুলনার এই গায়িকা। জানান, এবার শোর মৌসুমে দেশের অনেক জেলায় গিয়ে গান করেছেন। সবখানেই পেয়েছেন শ্রোতাদের ভালোবাসা। শুধু দেশে নয়, বিদেশেও তৈরি হয়েছে তাঁর ভক্ত-শ্রোতা। গত বিজয় দিবসে ফিনল্যান্ডের বাঙালিদের আয়োজনে একটি শোতে গান করেন। শো শেষে সবাই তাঁর কণ্ঠের খুব প্রশংসা করে। এ ছাড়া জাপান, মালয়েশিয়া, কাতার, ইতালি, দুবাই, সুইজারল্যান্ড, ভারত, নেপাল প্রভৃতি দেশেও শো করেছেন। বলেন, ‘ছোটবেলা থেকেই স্টেজে গান করি। এই মাধ্যমে গাওয়াটা সব সময়ই এনজয় করি। একজন শিল্পীর সত্যিকারের পরীক্ষা হয় স্টেজে। মজার বিষয় হচ্ছে, আমাকে মানুষ যতটা চিনেছে তার বেশির ভাগই কিন্তু স্টেজের জন্য।’ সামনে যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডা যাওয়ার প্রস্তাব আছে রেশমীর। কাগজপত্র গোছাচ্ছেন সে জন্য।

 

ভাবনায় প্লেব্যাক

২০১৫ সালে মুক্তি পাওয়া ইফতেখার চৌধুরীর ‘অ্যাকশন জেসমিন’ চলচ্চিত্রে একটি গানে কণ্ঠ দিয়েছিলেন রেশমী। অভিষেক গানটির জন্য সবার কাছ থেকে ইতিবাচক মন্তব্যও পেয়েছিলেন। কিন্তু এরপর আর কোনো চলচ্চিত্রে গাওয়ার সুযোগ আসেনি। এ নিয়ে হতাশা নেই রেশমীর। বরং অপেক্ষায় আছেন ভালো কিছুর, ‘আমার বিশ্বাস, চলচ্চিত্রে নিয়মিত গাইতে পারলে ভালো করব। এ জন্য সুযোগের প্রয়োজন। এ ক্ষেত্রে যোগাযোগটাও গুরুত্বপূর্ণ। আমি চেষ্টা করে যাচ্ছি। আশা করি সফল হব।’

 

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা

রেশমী জানান, চলতি বছর থেকে সিঙ্গল গানে মনোযোগী হবেন। নিজে তৈরি করার পাশাপাশি অন্যদের আয়োজনেও কণ্ঠ দেবেন, যাতে শ্রোতাদের মাঝে আরো ছড়িয়ে যেতে পারেন। স্টেজ শোর ব্যস্ততায় গত কয়েক মাস টিভি লাইভে সেভাবে অংশ নিতে পারেননি। এখন সেদিকেও জোর দিচ্ছেন।


মন্তব্য