kalerkantho


উডি-কেট জুটির প্রথম

আবার উডি অ্যালান, আবার নিউ ইয়র্ক। পরিচালক এবার হাজির পঞ্চাশের দশকের প্রেক্ষাপটে নির্মিত অপরাধ ঘরানার ‘ওয়ান্ডার হুইল’ নিয়ে। লিখেছেন হাসনাইন মাহমুদ

৩০ নভেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



উডি-কেট জুটির প্রথম

ডিসেম্বরের ১ তারিখে বয়সটা বিরাশি হবে। চলচ্চিত্র পরিচালনার ক্যারিয়ারটা হবে ৫১ বছরের। তার পরও থামার নাম নেই। ১৯৬৬ সালে ‘ওয়াটসআপ, টাইগার লিলি’ মুক্তির পর উডি অ্যালানের চলচ্চিত্র পরিচালনার চাকা ঘুরেছে সমানতালেই। শুধু সংখ্যার দিক থেকেই নয়, তাঁর ‘অ্যানি হল’, ‘ম্যানহাটান’, ‘দ্য পার্পল  রোজ অব কায়রো’, ‘ব্রডওয়ে ড্যানি রোজ’, ‘ভিকি ক্রিশ্চিনা বার্সেলোনা’, ‘মিডনাইট ইন প্যারিস’-এর মতো অনেক চলচ্চিত্রের স্রষ্টা উডি এবার নিয়ে আসছেন ‘ওয়ান্ডার হুইল’; যা মুক্তি পাবে তাঁর জন্মদিনেই।

পঞ্চাশের দশকের নিউ ইয়র্কের কোনি আইল্যান্ডের একটি বিনোদন পার্ক ঘিরে গল্প। মধ্যবয়সী বিবাহিত পরিচারিকা জিনির জীবন নতুন মোড় নেয়, যখন সংসারে অনেকটা হুট করেই সত্ মেয়ে এসে হাজির হয়। এদিকে জিনি ও তাঁর সত্ মেয়ে জুনো মিকি নামের এক লাইফগার্ডের প্রেমে পড়লে তৈরি হয় নতুন সংকট। অপরাধধর্মী এ চলচ্চিত্রে প্রধান চরিত্র করেছেন কেট উইন্সলেট, জাস্টিন টিম্বারলেক, জুনো টেম্পল, জিম বেলুশি প্রমুখ।

চলচ্চিত্রটিতে উডির সঙ্গে প্রথমবারের মতো জুটি বেঁধেছেন কেট উইন্সলেট। তাঁর করা জিনি চরিত্র নিয়েও বেশ উত্তেজিত তিনি, “সত্যি বলতে ‘টাইটানিক’ কিংবা ‘মাউন্টেইনস বিটুইন আস’-এর চেয়েও কঠিন ছিল জিনি চরিত্রটি ফুটিয়ে তোলা। জিনির প্রবল মানসিক দ্বন্দ্ব ও চরিত্রের বিভিন্ন স্তর দেখে আমি চিত্রনাট্য পড়েই ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম, পাছে না সব গুলিয়ে ফেলি! পরিচালক উডি দেখেই পরে রাজি হয়েছি।” উডির সঙ্গে কাজ করার অভিজ্ঞতাটাও যে একেবারেই অম্লমধুর তাও বলতে ভোলেননি, ‘ক্যামেরার পেছনে বসে তিনি প্রায়ই বলে উঠতেন, আমার অভিনয় খুবই বিরক্তিকর। এটা শুনেও স্বাভাবিকভাবে কাজ করা খুবই কঠিন।’

জাস্টিন টিম্বারলেকও বেশ উচ্ছ্বসিত চলচ্চিত্রটির অংশ হতে পেরে। লাইফগার্ডের পাশাপাশি নাট্যকার হতে চাওয়া মিকি চরিত্র ইতিমধ্যেই বিভিন্ন চলচ্চিত্র উত্সবে প্রশংসা কুড়িয়েছে। কেটের বিপরীতে উডির চলচ্চিত্রে অভিনয় এই বহুমুখী প্রতিভার তারকার কাছে স্বপ্নের মতোই।

তবে হালে হলিউডে অন্য সিনেমার মুক্তি আগে যে ইমেজ সংকটে পড়েছে তার ব্যতিক্রম নয় এটিও। দুনিয়া তোলপাড় করে দেওয়া যৌন কেলেঙ্কারির আঁচ লেগেছে এখানেও। কারণ হয়রানির দায়ে অভিযুক্তদের তালিকায় যে আছেন উডি স্বয়ং। অনেক বছর আগে তাঁর বিরুদ্ধে পালক কন্যাকে যৌন হয়রানির অভিযোগ ওঠে, যা উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ফের শিরোনাম হচ্ছে।

যদিও আপাতত এ নিয়ে পরিচালককে ‘নিরপরাধ’ হিসেবেই দেখছেন কেট উইন্সলেট, ‘আমার জানা মতে, তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হয়নি। তাঁর সঙ্গে এটাই আমার প্রথম কাজ, বলতে পারি আমি নিজে এমন কোনো অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হইনি।’


মন্তব্য