kalerkantho


কার ছবি কার হাতে

শাকিবের বদলে বাপ্পী

২৩ নভেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



শাকিবের বদলে বাপ্পী

‘ভালোবাসার রং’ জুটি বাপ্পী ও মাহিয়া মাহি

পারিশ্রমিক, শিডিউল, চিত্রনাট্য, মান-অভিমান, ব্যক্তিগত পছন্দ-অপছন্দ—কত কারণেই না ছবি ছেড়ে দেন প্রতিষ্ঠিত নায়ক-নায়িকারা! সুযোগ পেয়ে যায় নতুন কেউ, খুলে যায় ভাগ্য, জন্ম নেয় নতুন কোনো তারকা। এমনই কিছু ছবি আর নায়ক-নায়িকার গল্প নিয়ে ধারাবাহিক এই আয়োজন।

আজ থাকছে শাকিব খানের জায়গায় সুযোগ পেয়ে বাপ্পীর তারকা হওয়ার কথা ২০১০ সালের ডিসেম্বর। পরিচালক জুটি শাহীন সুমনের হাত ধরে ইন্ডাস্ট্রিতে পা রাখে নতুন প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া। তারা তিনটি ছবি করবে পরপর। পরিচালক সমিতিতে ছবিগুলোর নাম নিবন্ধনও হয়—‘ভালোবাসার রং’, ‘অন্যরকম ভালোবাসা’ ও ‘ভালোবাসা আজকাল’। সব কটি ছবিতেই অভিনয়ের কথা শাকিব খানের। অগ্রিম পারিশ্রমিকও পেয়ে যান শাকিব। আব্দুল্লাহ জহির বাবু শুরু করলেন গল্প লেখার কাজ। প্রথম ছবি ‘ভালোবাসার রং’-এর গল্প ও গান তৈরির কাজ শেষ হলে পরিচালক যোগাযোগ করলেন শাকিবের সঙ্গে। কিন্তু কোনোভাবেই ২০১১ সালে শিডিউল মেলাতে পারলেন না শাকিব। অন্যান্য ছবির ব্যস্ততায় অনুরোধ করলেন একটা বছর পর ছবিটির কাজ শুরু করতে। কিন্তু প্রযোজক অপেক্ষা করতে নারাজ। ২০১১-তেই শুরু করতে চান শুটিং। পরিচালককে শাকিব বললেন আপাতত প্রথম ছবিটি অন্য কোনো নায়ক নিয়ে শুরু করতে। প্রযোজক ও পরিচালক শাকিবের প্রস্তাব মেনে নিলেন। সিদ্ধান্ত হলো, অন্য কাউকে না নিয়ে নতুন জুটি নেওয়া হবে। জাজের পান্থপথের অফিসে চলল সপ্তাহব্যাপী অডিশন। শত শত ছেলে-মেয়ে হাজির হলো অডিশন দিতে। সেখান থেকেই বাছাই হলেন বাপ্পী ও মাহি। এক মাস তাঁদের গ্রুমিং করানো হলো। এরপর শুরু হলো শুটিং। যেহেতু ছবির প্রধান পাত্র-পাত্রী নতুন তাই পার্শ্বচরিত্রে নেওয়া হলো তারকা ও জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পীদের—রাজ্জাক, আলীরাজ, সুব্রত, মিজু আহমেদ, কাবিলা, নাসরিন ও ইলিয়াস কোবরা। ছবিটির শুটিং শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে নতুন এই জুটিকে নিয়ে জোর প্রচারণা শুরু করল জাজ। বলা হলো, ‘দেশের প্রথম ডিজিটাল সিনেমা। ’ জেলা শহরগুলোতে বিলবোর্ড পর্যন্ত লাগানো হলো। ২০১২ সালের ৫ অক্টোবর মুক্তি পেল ‘ভালোবাসার রং’। ছবিতে বাপ্পীর অভিনয় অতটা ম্যাচিউরড না হলেও নতুন নায়ক হিসেবে তাঁকে গ্রহণ করে নিল দর্শক। রাতারাতি চুক্তিবদ্ধ হতে শুরু করলেন বড় বড় প্রডাকশনের ছবিতে। তাঁকে নিয়ে ছবি করতে আগ্রহী হয়েছেন শাকিব খানের অন্য ছবির পরিচালকরাও। রাজু চৌধুরী, শাহাদাত্ হোসেন লিটন, মোহাম্মদ হোসেন, জাকির হোসেন রাজু, ইফতেখার চৌধুরীসহ অনেকেই বাপ্পীকে নিয়ে শুরু করলেন নতুন ছবি। শুধু তাই নয়, শাকিব খানের ‘অন্যরকম ভালোবাসা’ ছবিটিও শেষ পর্যন্ত করলেন বাপ্পী।

বাপ্পী বলেন, ‘কখনো ভাবিনি প্রথম ছবিতে ছক্কা মারতে পারব। শাহিন সুমন ও জাজ মাল্টিমিডিয়ার কাছে কৃতজ্ঞ। তাঁরা আমাকে সুযোগ না দিলে কখনোই আজকের বাপ্পী হতে পারতাম না। জীবনে একটাই সুযোগ পেয়েছি আর সেটা ভালোভাবেই কাজে লাগাতে পেরেছি বলে মনে হয়। ’


মন্তব্য