kalerkantho


পিয়ার বয়ানে তিন ক্রিকেটার মডেল

সম্প্রতি তাসকিন আহমেদের সঙ্গে একটি বিজ্ঞাপনচিত্রের মডেল হয়েছেন। এর আগে সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবালের সঙ্গেও মডেল হয়েছেন। জনপ্রিয় এই তিন ক্রিকেটারের সঙ্গে শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা বলছেন মডেল-অভিনেত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস পিয়া। লিখেছেন মাহতাব হোসেন

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



পিয়ার বয়ানে তিন ক্রিকেটার মডেল

সাকিব ভাই ভীষণ অমায়িক

ক্রিকেটারদের মধ্যে সাকিব আল হাসানের বিপরীতেই প্রথম মডেল হই, পোলার আইসক্রিমের বিজ্ঞাপনচিত্রে। বিজ্ঞাপনে দেখা যায়, দূর থেকে সাকিব ভাই এগিয়ে যাচ্ছেন আইসক্রিমওয়ালার দিকে।

হঠাত্ চোখ পড়ে আমার দিকে। আমিও কৌতূহলী চোখে তাকাই তাঁর দিকে। সাকিব ভাই দ্রুত এগিয়ে আসেন আমার দিকে। কিন্তু কাছাকাছি এসেই হাত বাড়ান পোলার আইসক্রিমের বিক্রেতার দিকে। মনে আছে, শুটিংয়ের সময় আমি ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়ে, সাকিব ভাই চোখে-মুখে দুষ্টামি মেখে এগিয়ে আসছেন। মনে হলো সাকিব ভাই আমার সঙ্গে দুষ্টামি করার জন্যই এগিয়ে আসছেন, সামনে যে ক্যামেরা সেটা ভুলেই গেছেন। আমাদের শুটিং ছিল একদম ভোরবেলায়। ভাবলাম, আমার কো-আর্টিস্ট কি যথাসময়ে উপস্থিত হতে পারবেন? কিন্তু আমি গিয়েই দেখি সাকিব ভাই উপস্থিত। শুটিংয়ে অনেক কথাই হয়েছে আমাদের। বললাম, ভাইয়া আপনি তো ক্রিকেটার, অভিনয় করতে পারবেন? তিনি কিছুই বললেন না, হাসলেন। সাকিব ভাই ভীষণ অমায়িক, যেকোনো প্রশ্নের উত্তর দেন হেসে হেসে। তখন আমি ক্রিকেট অতটা বুঝতাম না। জিজ্ঞেস করলাম, ক্রিকেট খেলেই এত ভক্ত আপনার? এই কথার উত্তরেও হেসেছিলেন। কাজ করতে গিয়ে দেখেছি, তিনি পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়েন, সময়মতোই পড়েন। ২০১৩ সালে নির্মিত এই বিজ্ঞাপনচিত্রটি নির্মাণ করেছিলেন গাজী শুভ্র।

আমি ব্যাটসম্যান তামিমের ভক্ত

সাকিব ভাইয়ের সঙ্গে কাজ করার পরের বছর স্যানমার মহানগর গ্রিন পার্কের বিজ্ঞাপনে আমার সঙ্গে দেখা গেছে তামিম ইকবালকে। এই ব্যাটসম্যানের ভীষণ ভক্ত আমি। তাঁর সঙ্গে একই বিজ্ঞাপনে আছি, জানতামই না! আফসোস, বিজ্ঞাপনী সংস্থা আমাকে জানাতেই পারত। বিজ্ঞাপনে দেখা যায়, গ্রিন পার্কে হেঁটে বেড়াচ্ছি আমি, এটা-ওটা দেখছি, আর তামিম সেটা দেখছেন ট্যাবে। একসঙ্গে আমাদের শুটিং হয়নি। প্রতিষ্ঠানটির শুভেচ্ছা দূত হিসেবে তামিম বিজ্ঞাপনে অংশ নিয়েছিলেন। বিজ্ঞাপনটি নির্মাণ করেছেন আহমেদ জামান সঞ্জীব।

তাসকিন ভীষণ লাজুক

এক বছরের জন্য এপেক্সের শুভেচ্ছা দূত হয়েছি আমি আর তাসকিন আহমেদ। বিজ্ঞাপনচিত্র ছাড়াও প্রতিষ্ঠানটির পণ্যের প্রচারণা, ফটোশুট আর ব্র্যান্ডিংয়ে অংশ নেব আমরা। শুরুই হলো বিজ্ঞাপনচিত্র দিয়ে।
তাসকিন খুবই প্রাণবন্ত ও লাজুক ছেলে। ওকে ‘তুমি’ করেই বলি। বললাম, তুমি এত ছোট ছেলে, এত জোরে বল করো কিভাবে? তাসকিন বলল, ‘আপু, আগে বলো আমার বয়স কত?’ বললাম ২০। তাসকিন জিজ্ঞেস করল, তোমার বয়স কত? বললাম ২৬। হেসে বলল, ‘আমি তোমার খুব একটা ছোট নই, আমার ২৪। ’ মেকআপ রুমে লক্ষ করেছি, ওকে কিছু বললেও প্রতিবাদ করে না, লজ্জা পায়। জিজ্ঞেস করলাম, তাসকিন তোমার হাইট কত? বলল, ৬ ফুট ২ ইঞ্চি। আমি অবাক হয়ে বললাম, ‘বাব্বাহ! নায়ক শাকিব খানের উচ্চতাও ৬ ফুট ২ ইঞ্চি, তুমিও তো নায়ক হতে পারো। অভিনয় করবা?’ তাসকিন বলল, ‘হ্যাঁ, করব, তবে...। ’ তবে কী? ‘আগে টানা ১০ বছর ক্রিকেট খেলব, তারপর নায়ক হব। ’


মন্তব্য