kalerkantho


নায়করাজের মৃত্যু নেই

২৪ আগস্ট, ২০১৭ ০০:০০



নায়করাজের মৃত্যু নেই

আব্দুর রাজ্জাক, [জন্ম : ২৩ জানুয়ারি ১৯৪২, মৃত্যু : ২১ আগস্ট ২০১৭]

তাঁর মৃত্যুতে বাংলাদেশ হারিয়েছে এক কিংবদন্তি, আর চলচ্চিত্র হারিয়েছে অভিভাবক। ঢাকাই ছবির বর্ণাঢ্য চরিত্র নায়করাজ রাজ্জাক।

২১ আগস্ট ব্যক্তি আব্দুর রাজ্জাকের মৃত্যু হয়েছে, তবে নায়করাজের মৃত্যু নেই। নায়করাজের স্মৃতিতে চার পৃষ্ঠাব্যাপী রঙের মেলার বিশেষ এই আয়োজন

 

হে নায়করাজ

হে নায়করাজ...

কে তুমি? প্রজন্ম কি জানে?

তোমার পরে কাউকে গুনতে হলে ১-এর পর সমস্তটাই খালি, কিচ্ছু দেখা যায় না

১০১ থেকে শুরু করা যেতে পারে।

কিং লিয়ার, গডফাদারকে

আমাদের মতো করে, কেউ ভাবেনি কখনো, কেন?

যখন তুমি ৫০-এর পরে

অথচ রবার্ট ডি নিরো, মার্লোন ব্র্যান্ডো যে সময়ে আসেন অন্য মাত্রায়,

উত্পল দত্ত, উত্তম, অমিতাভকে নিয়ে ভাবে ওদের পরবর্তী প্রজন্ম।

তোমায় নিয়ে একটা নায়ক বা জলসাঘর হয়নি কেন?

তবে কি এখানে কেউ ছিল না?

অথবা সময় ছিল না সময়ের মতো?

প্রশ্নটা রইল,

উত্তর তোমাকেই দিতে হবে এমন নয়।

তবে এ কথা সত্যি, তুমি শুধু নিজের নও,

নও তোমার পরিবারের, হে সম্রাট—

হে সাদা-কালোয় সম্পূর্ণ রঙিন ‘পাগলা রাজা’ আমাদের।

তুমি ‘রংবাজ’, তুমি ‘বেঈমান’,

‘বাঁদি থেকে বেগম’কে ভাসাও ‘অনন্ত প্রেমে’।

হল থেকে বের হওয়ার পরও অনেকক্ষণ পর্যন্ত থেকে যাওয়া ভাবনায় তুমিই ‘প্রতিনিধি’,

ভিতর-বাহির সমস্ত সত্তায়।

ফিরে ফিরে আসো,

উন্মাতাল স্বপ্ন বেচাকেনার দিনগুলিতে ‘জীবন থেকে নেয়া’ কলমে—

‘আলোর মিছিলে’ একদম সামনের দিকে।

সৌভাগ্যের বরপুত্র এক...

কে তুমি? প্রজন্ম কি জানে?

আহ্, সেই দৃশ্য কাচ বোতল হাতে ‘এই পথে পথে’

উপমহাদেশীয় রথী-মহারথীদের কত আগেই করেছিলে অ্যান্টিহিরো!

সেই রুপালি পাথর চোখ, রুপালি পর্দায়,

বিস্ময় বিপর্যস্ত উপাখ্যানে,

‘মানুষ যদি মোরে নাই বলো বেঈমান বলো বেঈমান’।

নতজানু, হতবাক,

আহ্ সেই কৈশোর, সেই গান—

সেই সাদা-কালো রুপালি পর্দায়।

তুমি হিমালয়, দণ্ডায়মাণ এভারেস্ট শৃঙ্গ

তুমি শুরু, তুমিই শেষ।

তুমি অরোরা, প্যারিকুটিন আগ্নেয়গিরি

ভিক্টোরিয়া জলপ্রপাত, তুমিই দেশ।

প্রজন্ম কি জানে?

সেই বেহুলারা এখনো ভাসায় ভেলা—

লখিন্দর তোমার জন্য, তোমারই জন্য।

প্রজন্ম কি জানে?

তোমার পরে কাউকে গুনতে হলে ১-এর পর সমস্তটাই খালি, কিচ্ছু দেখা যায় না

১০১ থেকে শুরু করা যেতে পারে...

 

প্রিন্স মাহমুদ [গীতিকার-সুরকার]

২৪ নভেম্বর ২০১৫


মন্তব্য