kalerkantho


পাঠকের চিঠি

‘ডুব’-এ ডুবতে চাই

৯ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



‘ডুব’-এ ডুবতে চাই

‘ডুব’ ছবিতে তিশা ও ইরফান খান

পরিচালক মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর নতুন ছবি ‘ডুব’ নিয়ে বিতর্ক চলছে বেশ কয়েক দিন ধরেই। মেহের আফরোজ শাওনের চিঠির কারণে ছবিটির ‘অনাপত্তিপত্র’ বাতিল করা হয়েছে বলে পত্রিকা পড়ে জেনেছি।

ব্যক্তিগতভাবে আমি ফারুকী ও শাওন দুজনেরই ভক্ত। ফারুকীর নাটক ‘ক্যারাম’, ‘পারাপার’ দেখে যেমন মুগ্ধ হয়েছি, তেমনি ‘থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বার’ ও ‘টেলিভিশন’ ছবি দেখেও মুগ্ধ হয়েছি। শাওন অভিনীত ‘শ্রাবণ মেঘের দিন’ আমার দেখা অন্যতম সেরা প্রেমের ছবি। ‘আজ রবিবার’ নাটকেও তাঁর অভিনয় ভালো লেগেছে।

আমার প্রিয় এ দুই তারকা আজ একে অপরের বিপক্ষে বক্তব্য দিচ্ছেন। শাওনের আবেগটা বুঝতে পারি, তিনি কোনোভাবে নিশ্চিত হয়েছেন, ছবিতে তাঁর ও হুমায়ূন আহমেদের ব্যক্তিগত জীবন দেখানো হবে। ব্যক্তিজীবন জনসমক্ষে চলে এলে যে কেউই অস্বস্তিতে পড়বেন। তিনি এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ফারুকীকে কখনোই হুমায়ূন আহমেদের সঙ্গে দেখেননি। পরিচয় ছিল বলেও তাঁর জানা নেই।

কারো জীবনী নিয়ে ছবি বানাতে হলে সেই ব্যক্তির যাবতীয় বিষয়ের ওপর জানাশোনা থাকা চাই। ফারুকীও বলছেন, তিনি বায়োপিক বানাননি। ছবিতে ইরফান খানের নামও জাভেদ হাবিব। তাহলে তো চিন্তার কারণ দেখছি না। ছবিটা দর্শককে দেখতে দিন। দেখলেই সব পরিষ্কার হয়ে যাবে। যদি দেখেন যে ছবিতে আপনার জীবন তুলে ধরা হয়েছে, তখন প্রয়োজনে মামলা করুন। আর যদি দেখেন হুমায়ূন ও আপনার জীবনের গল্প বলে অন্য কাহিনি চালানো হচ্ছে, তখন বিবৃতি দিয়ে বলুন, এসব মিথ্যা গল্প। তাহলেই ঝামেলা মিটে যায়।

আমি একজন চলচ্চিত্রপ্রেমী হিসেবে তাঁর ‘ডুব’-এ ডুবতে চাই। আমাকে বঞ্চিত করবেন কেন?

আব্দুল্লাহ করিম সুমন, ৭১/১ ঝিগাতলা, ঢাকা

Aksumonbd@gmail.com


মন্তব্য