kalerkantho


কার ছবি কার হাতে

এক সপ্তাহেই ৮ ছবির নায়িকা সাহারা

৯ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



এক সপ্তাহেই ৮ ছবির নায়িকা সাহারা

‘প্রিয়া আমার প্রিয়া’ ছবিতে সাহারা ও শাকিব খান

পারিশ্রমিক, শিডিউল, চিত্রনাট্য, মান-অভিমান, ব্যক্তিগত পছন্দ-অপছন্দ—কত কারণেই না ছবি ছেড়ে দেন প্রতিষ্ঠিত নায়ক-নায়িকারা! সুযোগ পেয়ে যায় নতুন কেউ, খুলে যায় ভাগ্য, জন্ম নেয় নতুন কোনো তারকা। এমনই কিছু ছবি আর নায়ক-নায়িকার গল্প নিয়ে ধারাবাহিক এই আয়োজন। আজ থাকছে পূর্ণিমার জায়গায় সুযোগ পেয়ে সাহারার তারকা হওয়ার কথা

 

২০০৬ সাল, অ্যাকশন ঘরানা থেকে বেরিয়ে একটা রোমান্টিক ছবি বানাতে চাইলেন বদিউল আলম খোকন। গল্প পছন্দ করলেন আগেই। প্রযোজনা সংস্থা আশা প্রডাকশনসের প্রযোজক মনির হোসেন রাজি। নায়ক নিলেন শাকিব খানকে, দেড় লাখ টাকায়। কথা বললেন পূর্ণিমার সঙ্গেও। কিন্তু শাকিবের পছন্দ নতুন কেউ। বললেন, ‘রোমান্টিক ছবি। নতুন কাউকে নায়িকা নেন। ’ শাকিবের কথায় রাজি হলেন খোকন।

নীলা নামের এক নতুন নায়িকার কথা বললেন, শাকিব রাজি। নীলাকে সাইনিং মানিও দিলেন। হঠাৎ কাউকে না বলে নীলা বিয়ে করে আমেরিকায় পাড়ি দিলেন। আটকে গেলেন খোকন। কী করবেন ভেবে উঠতে পারছেন না। ভাবলেন সাহারার কথা। শাহাদাৎ হোসেন লিটনের ‘রুখে দাঁড়াও’ দিয়ে অভিষেক হয়েছে তাঁর। ছবিটি বিতর্কিত। অশ্লীলতার অভিযোগ সাহারার দিকেও। কথা বললেন প্রযোজকের সঙ্গে। প্রযোজক খোকনের ওপর সিদ্ধান্ত ছেড়ে দিলেন। বিকল্প নায়িকার কথাও ভাবলেন খোকন। কিন্তু মনমতো কাউকে পেলেন না। চরিত্রটি পুলিশ অফিসারের আদরের বোনের। স্মার্ট আবার অহংকারী। বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ে। চরিত্রটির সঙ্গে সাহারাকে পারফেক্ট মনে করলেন খোকন। আলাপ করলেন মেকআপম্যান ও ড্রেসম্যানের সঙ্গে, তাঁরাও আশ্বাস দিলেন। খোকন গেলেন শাকিবের কাছে। পূর্ণিমার মতো সাহারার প্রতিও নেতিবাচক শাকিব। পরিচালককে বললেন, ‘জীবনে প্রথম একটা রোমান্টিক ছবি বানাবেন, সেখানে কেন বিতর্কিত নায়িকা নেবেন?’ কিন্তু খোকন আর সময় নষ্ট করতে চাইলেন না। শাকিবকে রাজি করালেন। শুরু হলো ‘প্রিয়া আমার প্রিয়া’। শুটিংয়ে সাহারার অভিনয়, নাচ দেখে ইউনিটের সবাই খুশি। ঝামেলা বাধল মুক্তির সময়। মাত্র ৩৩টি প্রিন্ট। খোকনের আগের ছবির তুলনায় অর্ধেক দামেও কেউ নিতে চাইছে না। খোকনের প্রথম ছবির প্রযোজক ট্রেলার দেখে ভালো বললেন, কিন্তু হলে ছবিটি চালানোর আগ্রহ প্রকাশ করলেন না। কারণ নাকি সাহারা! শেষ পর্যন্ত ২০০৮-এর জুলাইয়ে ছবি মুক্তি দিলেন। শুক্রবার সকাল থেকে খুব টেনশনে খোকন। যদি ছবি না চলে, সবাই বলবে মসলাদার ছবি ছাড়া খোকন অচল। দুপুর ১২টার দিকে মধুমিতা হলের ম্যানেজারের ফোন। জানালেন, হাউসফুল। একইভাবে সন্ধ্যা নাগাদ সারা দেশ থেকে খবর এলো, ছবি সবখানেই হাউসফুল। দেড় কোটি টাকার ছবি সব মিলিয়ে ব্যবসা করল সাত কোটি টাকা। বাড়াতে হলো প্রিন্টসংখ্যাও। সাহারাকে আর পায় কে! বিতর্কিত নায়িকা থেকে হয়ে উঠলেন প্রথম সারির নায়িকা। এক সপ্তাহেই সাইন করলেন আট ছবি। শুধু সাহারাই নন, এই ছবির পর একই পরিচালক ও প্রযোজকের পরের ছবি ‘নিঃশ্বাস আমার তুমি’তে শাকিব পারিশ্রমিক নিয়েছেন ২৫ লাখ টাকা।

বদিউল আলম খোকনের সঙ্গে কথা বলে লিখেছেন সুদীপ কুমার দীপ


মন্তব্য