kalerkantho

25th march banner

দিশার দিনকাল

‘এম এস ধোনি : দ্য আনটোল্ড স্টোরি’তে ধোনির গার্লফ্রেন্ড হয়ে নজর কাড়েন। এবার তাঁকে দেখা যাবে ‘কুংফু ইয়োগা’তে। দিশা পাটানিকে নিয়ে লিখেছেন খালিদ জামিল

২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



দিশার দিনকাল

মহেন্দ্র সিং ধোনির সাবেক প্রেমিকা প্রিয়াঙ্কা ঝা’র চরিত্র দিয়ে শুরু হলেও দিশা পাটানির মুখটা অনেকের কাছেই বেশ পরিচিত। হওয়ারই কথা। আগে থেকেই আলোচিত কয়েকটি বিজ্ঞাপনে দেখা গেছে তাঁকে। ২০১৩ সালের মিস ইন্দোরে প্রথম রানার-আপ ছিলেন। এর পরই ইমপেরিয়াল ব্লু, ডেইরি মিল্ক সিল্ক বাবলি, গার্নিয়ার, এয়ারসেলের বিজ্ঞাপনে দেখা যায় তাঁকে।

‘ধোনির প্রেমিকা’ ছাড়াও আরো একটা কারণে আলোচিত দিশা—টাইগার শ্রফ। জ্যাকি শ্রফ পুত্রের সঙ্গে তাঁর মন দেওয়া-নেওয়া চলছে। যদিও কেউ স্বীকার করেননি কিন্তু ঘটনা যে সত্যি বলিউডের অনেকেই তা জানেন। যার বড় প্রমাণ ‘কফি উইথ করণ’-এ দুজনকে একসঙ্গে আমন্ত্রণ জানালেও রাজি হননি কেউ। অগত্যা জ্যাকি ও টাইগারকে নিয়ে শো করেন করণ।

নিজেদের প্রেম নিয়ে এতটাই সতর্ক যে ‘ভাগি’ ছবি দিশা ছাড়েন স্রেফ টাইগারের বিপরীতে কাজ করতে হবে বলে! অবশ্য ছবির ভাগ্য বরাবরই বেশ খারাপ তাঁর। ভালো কয়েকটি প্রস্তাব পেয়েও নানা কারণে হারাতে হয়েছে। যে তালিকায় আছে করণ জোহরের ‘নো সং প্লিজ’। একতা কাপুরের ‘ভ্যানিটি  ফেয়ার’ ছবির কেন্দ্রীয় চরিত্রের জন্যও তাঁকে নির্বাচন করা হয়। কিন্তু কোনোটির কাজই শেষ পর্যন্ত এগোয়নি। তবে হাজারো তারকার ভিড়ে দিশার চাহিদা যে বেশ আছে সে কথা বলাই যায়। ‘ধোনি’ থেকে টাইগার শ্রফ—নানা কারণেই অন্য অনেক বড় তারকার চেয়েও নিয়মিত খবরে থাকেন। যদিও ‘খবর’ হতে নাকি দিশার একটুও ভালো লাগে না। সে জন্যই টাইগারের সঙ্গে কাজ করা এড়িয়ে চলেন, ‘কেউ বিশ্বাস করতে চাইবে না কিন্তু এটাই সত্যি যে আমি তারকা হতে চাই না। নিয়মিত কিছু ভালো ছবি করতে পারলেই ভালো লাগবে। তারকাখ্যাতি, পুরস্কারে বরং কাজের প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলি! একটা ছবি, দুই মাস ঘোরাঘুরি—এই জীবনটাই বেশি পছন্দ আমার। ’

ঘোরাঘুরি যে পছন্দ সেটা দিশার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের পোস্টে তাকালেই বোঝা যায়। নিয়মিত সেখানে তাঁর ভ্রমণ দিনলিপি থাকে।

তারকা হতে না চাইলেও এবার তারকা বনে যাওয়ার আরো এক সুযোগ সামনে। কারণ বহু তারকাময় ‘কুংফো ইয়োগা’-র অন্যতম তিনি। এরই মধ্যে হংকং ও চীনসহ পূর্ব এশিয়ার বেশ কয়েকটি দেশে মুক্তি পেলেও ভারতে মুক্তি পাবে কাল। এখানে তাঁকে দেখা যাবে জ্যাকি চানের সঙ্গে। এক প্রত্নতত্ত্ববিদের চরিত্র করেছেন তিনি। ছবিতে আরো আছেন সোনু সুদ, আমায়রা দস্তুর প্রমুখ।

২০১৬ সালে চীনের প্রেসিডেন্ট শি চিনপিং ভারত সফর করেন। সে সময় আরো অনেক চুক্তির মধ্যে ছিল চীন-ভারত যৌথ প্রযোজনায় তিনটি চলচ্চিত্র নির্মাণও। যার একটি ‘কুংফু ইয়োগা’-র পরিচালক স্ট্যানলি টং। অ্যাকশন কমেডি ধাঁচের ছবিটির শুটিং হয়েছে ভারত, দুবাই ও পেইচিংয়ে।  


মন্তব্য