kalerkantho


ইউটিউব থেকে নাটকে

ইউটিউবে ভিডিও বানিয়ে পরিচিতি পেয়েছেন। সুযোগ পেয়েছেন টিভি নাটকে। শামীম হাসান সরকারকে নিয়ে লিখেছেন ইসমাত মুমু। ছবি তুলেছেন সুমন ইসলাম আকাশ

১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



ইউটিউব থেকে নাটকে

ঝিনাইদহ ক্যাডেট কলেজ থেকে এসএসসি ও এইচএসসি। সাংস্কৃতিক চর্চাটা ক্যাডেট জীবন থেকেই শুরু।

ক্লাস সেভেনে প্রথম মঞ্চে অভিনয়ের অভিজ্ঞতা। মিলিটারি ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়েছেন সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে। “বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে অভিনয়ে নিজেকে আরো বেশি সম্পৃক্ত করতে পারি। বিশ্ববিদ্যালয়ে নবীনবরণ উৎসবে আমি ‘কমলাকান্তের জবানবন্দি’ নাটকে পারফর্ম করি। আমিই ছিলাম কমলাকান্ত। এরপর বিশ্বদ্যািলয়ের নানা সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ি। ‘ড্রামা সোসাইটি’ নামে একটা সংগঠন প্রতিষ্ঠা করি। এভাবেই কেটে গেল বিশ্ববিদ্যালয়জীবন”—বললেন শামীম।

বিএসসি শেষে চাকরিতে যোগ দিলেন।

দেড় বছর পর চাকরিটা ছেড়ে দিলেন। উদ্দেশ্য, উচ্চতর শিক্ষা। ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি মালয়েশিয়ায় ভর্তি হলেন মাস্টার্সে। বিদেশে থাকাবস্থায়ই মাথায় ইউটিউবের প্ল্যান আসে। গড়ে তোলেন ইউটিউব চ্যানেল ‘ম্যাঙ্গো স্কোয়াড’। শামীম বলেন, ‘অভিনয় প্রতিভাটা কাজে লাগানোর ভাবনা থেকেই চ্যানেলটা করি। দেশের কিছু সমস্যা, অসংগতি, সচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে কিছু নাট্যাংশ তৈরি করি। অভিনয় করতাম নিজেই। ’

‘ই-স্মার্টনেস’, ‘বেবি বিকাম ইউটিউবার’—ভিডিও দুটি দিয়ে শুরু।   পরে ‘অস্থির মিউজিশিয়ান’ ও ‘অস্থির জার্নালিজম’ ভিডিও দুটির মাধ্যমে অনলাইনে ভীষণ জনপ্রিয়তা পেলেন।

মালয়েশিয়া থেকে ফিরে একটি বিদেশি প্রতিষ্ঠানে যোগ দেন। কিন্তু অভিনয়ের নেশাটা তাঁকে ছাড়েনি। একটা সময় চাকরি ছেড়ে ফুলটাইম অভিনেতা বনে গেলেন। টিভি নাটকে প্রথম সুযোগ পেলেন মাবরুর রশীদ বান্নাহর ধারাবাহিক ‘নাইন অ্যান্ড আ হাফ’-এ। ১০৭ পর্বের পর শামীমের এন্ট্রি। শুরুতে তাঁর চরিত্রের গুরুত্ব খুব একটা ছিল না। শামীমের অভিনয় প্রতিভার কারণে বান্নাহ তাঁর চরিত্রের গুরুত্ব বাড়িয়ে দিলেন। ‘চাকরি ছাড়ার পর পরিবার থেকে অনেক কথাই শুনতে হয়েছে। এত ভালো চাকরি ছেড়ে কেন অভিনয়? অনেক কঠিন সিদ্ধান্ত। তবে তাঁদের বিশ্বাস ছিল, আমি পারব। আমিও আশাবাদী ছিলাম, ভালো অভিনয় দেখাতে পারলে পরিচালক বা দর্শকের নজরে পড়বই’—বললেন শামীম।  

তাঁর অভিনীত উল্লেখযোগ্য ধারাবাহিকের মধ্যে রয়েছে ‘নাইন অ্যান্ড আ হাফ’, ‘হাউজ ৪৪’, ‘ব্যাকবেঞ্চার’, ‘তরুণ-তুর্কি’, ‘কারসাজি’, ‘হার্টবিট’, ‘টমেটো ক্যাচাপ’। একক নাটকের মধ্যে রয়েছে ‘প্রবলেমটা কী’, ‘আ জার্নি বাই রিলেশন’, ‘ক্রস কানেকশন’, ‘প্রেমিকার বিয়ে’, ‘টমবয়’, ‘শতাব্দীর শ্রেষ্ঠ বিবাহ’, ‘আই হেট ইউ’, ‘আকাশে রঙের দোলনা’।

অভিনয় করতে এসে ভালো-মন্দ অভিজ্ঞতাও হয়েছে। ‘তিনি আমাদের বকর ভাই’ নাটকে আফরান নিশো ও শাওনের সঙ্গে হয়েছিল বাইক দুর্ঘটনা। তিনজনই বেশ আহত হয়েছিলেন। বললেন কিছু পছন্দের চরিত্রের কথা। ‘আ জার্নি বাই রিলেশন’-এর নাহিদ, হাতে তালি দিয়ে কথা বলে। ‘টমবয়’ নাটকে মামা, ছন্দে ছন্দে ছড়া বানিয়ে কথা বলে। ‘টমেটো ক্যাচাপ’-এ লিমিটলেস ফানি ক্যারেক্টার।

বেশ কিছু প্রশংসিত স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছেন শামীম—‘অবিশ্বাস’, ‘আতশী’, ‘দ্য ক্লে’।


মন্তব্য