kalerkantho

শুক্রবার । ২০ জানুয়ারি ২০১৭ । ৭ মাঘ ১৪২৩। ২১ রবিউস সানি ১৪৩৮।


অদ্বিতীয়া অদিতি

বলিউডের জনপ্রিয় গায়িকা অদিতি সিং শর্মা। ‘কি অ্যান্ড কা’ ছবিতে তাঁর গাওয়া ‘হাই হিলস তে নাচে’ এখন মির্চি টপ চার্টের সেরা বিশের দুই নম্বরে। ২৯ বছর বয়সী এই গায়িকাকে নিয়ে লিখেছেন রবিউল ইসলাম জীবন

৩১ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



অদ্বিতীয়া অদিতি

শাহরুখ খান, সনু নিগমদের দেখেই আমার বড় হওয়া। তাঁরা দুজন আমার দুই পাশে দাঁড়িয়ে গান করছেন, প্রশংসা করছেন—এটা ছিল আমার জন্য অসাধারণ এক অনুভূতি!

‘কি অ্যান্ড কা’ মুক্তি পাচ্ছে ১ এপ্রিল। তার আগেই এই ছবির ‘হাই হিলস তে নাচে’ গানটির জন্য চারদিক থেকে প্রশংসা পাচ্ছেন অদিতি সিং শর্মা। মিট ব্রোসের সুরে গানটিতে জাজ ধামির সঙ্গে কণ্ঠ দিয়েছেন অদিতি। গানটির অফিশিয়াল ভিডিও ইউটিউবে আপ করা হয়েছে ২০ ফেব্রুয়ারি। প্রথম ৪০ দিনে এটির ভিউয়ার এক কোটি ৩৫ লাখেরও বেশি। অদিতির গায়কির সঙ্গে কারিনা কাপুরের নাচ গানটিকে দিয়েছে বিশেষ মাত্রা। অদিতি বলেন, ‘কারিনা কাপুরের জন্য গাওয়াটা আমার জন্য সব সময়ই বিশেষ। ’ সঙ্গে যোগ করেন, ‘কয়েক দিন আগে একটি অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে অর্জুন কাপুরের সঙ্গে দেখা। তিনিও এই গানে পারফর্ম করেছেন। গানটি প্রসঙ্গে আমাকে বলেন, তোমার গলা একেবারে কারিনার মতোই! তাঁর ঠোঁটে তোমার কণ্ঠ মানিয়েছে বেশ। কথাটা শুনে খুবই ভালো লেগেছে। ’

২৬ ফেব্রুয়ারি মুক্তি পাওয়া ‘লাভ শগুন’ ছবির ‘হিচকিয়াঁ’ গানটিও এই গায়িকার। গানটিতে তাঁর সঙ্গে র‌্যাপ করেছেন বব। ১১ মার্চ মুক্তি পাওয়া ‘তেরা সুরুর’ ছবির ‘বেখুদি’ গানটির শিল্পীও অদিতি। এতে তাঁর সঙ্গে কোলাবরেশন করেছেন হিমেশ রেশামিয়া। ইউটিউবে গানটির অফিশিয়াল ভিডিওর ভিউয়ার ৪৬ লাখ ২০ হাজারের বেশি।

অবস্থা দেখেই বোঝা যাচ্ছে বলিউডে এখন কতটা ব্যস্ত অদিতি সিং শর্মা। ২০০৯ সালে ‘দেব ডি’ ছবি দিয়ে প্লেব্যাকে তাঁর অভিষেক। প্রথম দানেই বাজিমাত। এরপর আর পিছু ফিরে তাকাতে হয়নি। কণ্ঠ দিয়েছেন প্রায় ৪০টি ছবিতে। যার বেশির ভাগ গানই হিট। বিশেষভাবে বলতে হয় ২০১৪ সালে মুক্তি পাওয়া ‘রয়’ ছবির ‘সুরজ ডুবা হ্যায়’ গানটির কথা। এতে অরিজিৎ সিংয়ের সঙ্গে কণ্ঠ দিয়েছিলেন অদিতি। গানটির ভিডিওর কয়েকটি লিংক দেওয়া আছে ইউটিউবে। এর মধ্যে একটির ভিউয়ার প্রায় তিন কোটি! এতেই প্রমাণ মিলছে অদিতির কণ্ঠ কতটা আকৃষ্ট করেছে ভক্ত-শ্রোতাদের। একই বছর মুক্তি পাওয়া ‘বাংগিস্তান’ ছবির ‘সাটারডে নাইট’ও শ্রোতাপ্রিয়।

এর আগে ২০১২-র ‘ধুম ৩’ ছবির ‘ধুম মাচালে ধুম মাচালে’ এবং ‘অ্যালোন’ ছবিতে গাওয়া ‘টাচ মাই বডি’ গানগুলোও ছিল শ্রোতার পছন্দের তালিকায়। ‘দমাদম’, ‘এজেন্ট বিনোদ’, ‘হিরোইন’, ‘টার্নিং ৩০’, ‘নো ওয়ান কিলড জেসিকা’, ‘গেম’ ছবিতেও আছে তাঁর কণ্ঠ।

অমিত ত্রিবেদী, সেলিম সুলেমান, শংকর-এহসান-লয়, প্রীতমসহ অনেক সংগীত পরিচালকের সঙ্গেই কাজ করেছেন ২৯ বছর বয়সী এই গায়িকা। তবে প্রীতমের সঙ্গেই কাজ করেছেন বেশি, সফলতাও। ‘প্রীতম মানুষ হিসেবে যেমন অসাধারণ, তেমনি মিউজিশিয়ান হিসেবেও। রেকর্ডিংয়ে তাঁর কাছ থেকে সংগীতের অনেক কিছু জানতে পেরেছি। ক্যারিয়ারে অনেকের সঙ্গেই কাজ করেছি, তবে তাঁর প্রতি আমার ভালোবাসা এবং শ্রদ্ধাবোধ অনেক বেশি। তাঁর টিমের একজন হতে পারাটা আমার জন্য আশীর্বাদের মতো। ’ বললেন অদিতি।

বলিউডে গাওয়া নিয়ে কণ্ঠশিল্পীদের মধ্যে এক ধরনের প্রতিযোগিতা চলে। এটাকে কিভাবে দেখেন?

বলেন, ‘আমি মনে করি ইতিবাচক যেকোনো প্রতিযোগিতাই ভালো। এখন তো রিয়ালিটি শো, সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমের কল্যাণেও অনেক শিল্পী নিজেদের প্রতিভা মেলে ধরার সুযোগ পাচ্ছেন। আমি খুবই ভাগ্যবতী যে এই পথটা অতিক্রম করতে পেরেছি। ’

কিছুদিন আগে এক মিউজিক অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানে হঠাৎ অদিতি সিং শর্মাকে মঞ্চে ওঠার আমন্ত্রণ জানান বলিউড কিং শাহরুখ খান। তিনি নাকি অদিতির ভক্ত! কী করবেন বুঝে উঠতে পারছিলেন না অদিতি। শেষতক মঞ্চে উঠলেন শাহরুখের হাত ধরে। খানিক বাদে উঠলেন সনু নিগম। বামে শাহরুখ, ডানে সনু। মাঝে অদিতি। তিনজন মিলে একটি গানও ধরলেন। এটাকে সংগীতজীবনের অনেক বড় পাওয়া বলেই মানছেন, ‘শাহরুখ খান, সনু নিগমদের দেখেই আমার বড় হওয়া। তাঁরা দুজন আমার দুই পাশে দাঁড়িয়ে গান করছেন, প্রশংসা করছেন—এটা ছিল আমার জন্য অসাধারণ এক অনুভূতি!’

অদিতির স্বপ্ন একদিন অস্কারজয়ী এ আর রহমানের সুরে গাইবেন। শচীন জিগার, সাজিদ ওয়াজিদ, মিঠুনের সঙ্গেও কাজ করতে চান। এগিয়ে যেতে চান আরো অনেক দূর।

 


মন্তব্য