সিংহাসনের লড়াই-334118 | রঙের মেলা | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

সোমবার । ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১১ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৩ জিলহজ ১৪৩৭


সিংহাসনের লড়াই

এ পর্যন্ত বড় মাপের ১৯০টি পুরস্কার জিতেছে ‘গেইম অব থ্রোনস’। প্রতি পর্বের দর্শকসংখ্যা গড়ে ৬৯ লাখ। স্টার ওয়ার্ল্ডে দেখানো হচ্ছে এটির পুরনো সব সিজন। আর ষষ্ঠ সিজন শুরু হবে ২৪ এপ্রিল থেকে। জানাচ্ছেন ফয়সল আবদুল্লাহ

১০ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



সিংহাসনের লড়াই

‘শীত’ আসি আসি করেও আসেনি গত পাঁচ সিজনে। ষষ্ঠ আসরটা বোধ হয় শুরুই হবে সেই ‘শীত’ (এখানে শীত বলতে বোঝানো হয়েছে মৃতজগৎ থেকে আসা মৃতদের আক্রমণকে) দিয়ে। অন্তত এমনই ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছিল সর্বশেষ পর্বটাতে। বলছিলাম এই সময়ের সবচেয়ে আলোচিত ও প্রায় সব শ্রেণির দর্শকের কাছে সবচেয়ে কাঙ্ক্ষিত টিভি সিরিজ ‘গেইম অব থ্রোনস’-এর কথা।

‘ওয়েস্টেরস’ নামের একটি কল্পসাম্রাজ্যের সাতটি রাজ্যের ক্ষমতার টানাপড়েন নিয়ে ‘গেইম অব থ্রোনস’। এ পর্যন্ত প্রচারিত ৫০টি পর্বে দেখানো হয়েছে মূলত এক সাম্রাজ্যের সঙ্গে আরেক সাম্রাজ্যের যুদ্ধ, উত্তেজনা এসব। কিন্তু ষষ্ঠ আসরের মূল বিষয় হতে পারে সেই শীতের আক্রমণ। সবাই এত দিন ‘উইন্টার ইজ কামিং’ বলে যে ভয়টা পেয়ে আসছিল। আবার পঞ্চম পর্বে মারা যাওয়া সিরিজের অন্যতম চরিত্র ‘জন স্লো’ (কিট হ্যারিংটন) ফিরে আসতে পারেন নতুনরূপে।

ভক্তদের একটা বড় অভিযোগ হলো, এই সিরিজে যে চরিত্রটাই বেশি জনপ্রিয় হয়ে ওঠে, সেটাকেই নাকি নির্মাতারা কোনো না কোনোভাবে মেরে ফেলেন। যার সর্বশেষ ‘শিকার’ জন স্নো। তবে সিরিজে এ পর্যন্ত জনপ্রিয় চরিত্র টাইরিন ল্যানিস্টার, আরিয়া স্টার্ক, ডেনেরিস টার্গারিয়ানরা সহসা মারা যাবে বলে মনে হচ্ছে না।

জর্জ আর আর মার্টিনসের লেখা ফ্যান্টাসি উপন্যাস ‘আ সং অব আইস অ্যান্ড ফায়ার’ অবলম্বনে টিভি ধারাবাহিকটা তৈরি করেছেন ডেভিড বেনিওফ ও ডিবি ওয়েইজ। এ দেশেও তুমুল জনপ্রিয়তা পাওয়া সিরিজটির প্রচারস্বত্ব রয়েছে এইচবিওর হাতে।

ট্রিলজি ছবি ‘লর্ড অব দ্য রিংস’-এর দ্বারা দারুণভাবে প্রভাবিত এ টিভি সিরিজটি ‘অহেতুক যৌনতা’য় ভারাক্রান্ত বলে অভিযুক্ত হলেও আইএমডিবিতে এর রেটিং ১০-এ ৯.৫! প্রথম সিজনে গড়ে প্রতি পর্বে ২৫ লাখ দর্শক থাকলেও পঞ্চম সিজনে এসে তা প্রায় ৬৯ লাখে দাঁড়িয়েছে। আর পুরস্কার যে কী পরিমাণ জিতেছে তা গুনে শেষ করা মুশকিল। প্রাইমটাইম অ্যামি অ্যাওয়ার্ড জিতেছে ২৬টি, মনোনয়ন পেয়েছে ৮৬টি। ২০১১ সালের অ্যামি অ্যাওয়ার্ডে ১৩টি মনোনয়ন পায় গেম অব থ্রোনসের প্রথম সিজন। এক বছরে সবচেয়ে বেশি অ্যামি জেতার রেকর্ডও এ সিরিজের দখলে। এ পর্যন্ত বড় মাপের মোট ১৯০টি পুরস্কার জিতেছে এ সিরিজ, মনোনয়ন পেয়েছে ৫০৮টি।

আরো একটি অন্য রকম রেকর্ড আছে। ‘গেমস অব থ্রোনস’ প্রথম টিভি সিরিজ, যেটির কোনো পর্ব আইম্যাক্স থিয়েটারেও প্রদর্শিত হয়েছে। চতুর্থ সিজনের শেষ দুটি পর্ব যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কয়টি হলে দেখানো হয়। তাতে আবার প্রথম সপ্তাহেই আয় হয়েছে ১৫ লাখ ডলার!

এত কিছু জানার পরও যাঁরা সিরিজটি এখনো দেখেননি তাঁরা নিশ্চয়ই আফসোস করছেন। ডিভিডি কিংবা ডাউনলোড করে পুরনো সিজনগুলো শেষ করে নেওয়ার পালা কিন্তু এখনই।

কারণ ষষ্ঠ সিজন অন এয়ার হওয়ার পর

থেকেই চারদিকে এ নিয়ে এতটা শোরগোল লেগে যাবে যে আগের পর্বগুলো দেখার আগেই জানা হয়ে যাবে নতুন পর্বের গল্প। আর তাতে সিরিজ দেখার মজাটাই যে পানসে হয়ে যায় সে আর বলতে!

মন্তব্য