আমি পাইলাম, ইহাকে পাইলাম-331423 | রঙের মেলা | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১৪ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৬ জিলহজ ১৪৩৭


সেরা অভিনেতা

আমি পাইলাম, ইহাকে পাইলাম

দুই দশক আর ছয়-ছয়টা মনোনয়নের পর তাঁর হাতে ধরা দিল অস্কার। লিওনার্দো ডিকাপ্রিওর অস্কারযাত্রার গল্প শোনাচ্ছেন রিদওয়ান আক্রাম

৩ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



আমি পাইলাম, ইহাকে পাইলাম

একটা অস্কার পেতে কত বছর সময় লাগে? লিওনার্দো ডিকাপ্রিওকে জিজ্ঞেস করুন। ভদ্রলোক গুনে গুনে বলে দিতে পারবেন, সময়টা ২২ বছর। অন্তত তাঁর জন্য তো অবশ্যই। সেই ১৯৯৪ সাল থেকে একটা অস্কারের জন্য অপেক্ষা। প্রথম যখন ওটা অল্পের জন্য নিজের হাত থেকে চলে গেল অভিনেতা টমি লি জোনসের ঝোলায়, তখন হয়তো নিজেকে প্রবোধ দিয়েছিলেন, ‘রসো রসো, যাবেটা কোথায়? সামনের বার তো পাচ্ছিই পাচ্ছি।’ কিন্তু সময় যতই গড়িয়েছে, নিজেকে প্রবোধ দেওয়াটা বোধ হয় ততই বাদ দিয়েছেন। বরং সেই জায়গায় চেপে বসেছিল জেদ। ফলে পরের দুই দশকে শুধু নিজেকে ছাড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টাই করে গেছেন। তারই ফল ‘দ্য রিভেন্যান্ট’। নিজেও স্বীকার করেছেন, এই ছবি করতে গিয়ে অভিনয়জীবনে বেশ কষ্ট সহ্য করতে হয়েছে। তীব্র শীতের মধ্যে শুটিং করতে হয়েছে কানাডার বুনো পরিবেশে। দিনের পর দিন ভারী কম্বলের মতো পোশাক গায়ে চাপিয়ে হাড়কাঁপানো শীতে অভিনয় করতে হয়েছে টানা ৮০ দিন। নিরামিষাশী হওয়া সত্ত্বেও চরিত্রের প্রয়োজনে খেতে হয়েছে বাইসনের কলিজা থেকে পিঁপড়ে পর্যন্ত। এত কষ্টের ফল পাওয়া শুরু করেন বছরের শুরু থেকেই। পেয়ে যান ৭৩তম ‘গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ড’-এ সেরা অভিনেতার (ড্রামা) পুরস্কার। বলা যায়, তখন থেকেই শুরু ডিকাপ্রিওর প্রথম অস্কার পাওয়ার যাত্রা। সারা বিশ্বে ছড়িয়ে থাকা এই অভিনেতার ভক্তরা একরকম রব শুরু করে—‘অস্কার দিতে হবে লিওকে’।

পাগলা ভক্তরা কী না করেছেন! ১০০ রুশ নারী ভক্ত নিজেদের সোনা-রুপা দিয়ে তৈরি করেছেন একটি নমুনা অস্কার মূর্তি। মূল অস্কার অনুষ্ঠানের আগেই তাঁরা মূর্তিটি পৌঁছে দিয়েছেন লিওনার্দোর বাড়িতে। আরেক দল ভক্ত বানিয়েছেন একটি অনলাইন গেইম ‘লিও’জ রেডকার্পেটর্যামপেইজ’। গেইমে লিওকে সাহায্য করতে হয় অস্কার পুরস্কারটি পাওয়ার জন্য। দৌড়ে সেটা ধরার পথে বাধা হয়ে দাঁড়ায় অনেক আলোকচিত্রী। মাঝেমধ্যে হাজির হন লেডি গাগা, মাইকেল ফাসবেন্ডারের মতো তারকা। এবার এক ভক্ত বানালেন ভিডিও। পুরস্কার পাওয়ার পর লিওনার্দো কী বক্তব্য দেবেন, সেটাই দেখা যাচ্ছে ভিডিওতে। তাঁর অভিনীত ছবির বিভিন্ন সংলাপ নিয়ে তৈরি এই ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছিল অনলাইনে। ভক্তদের দোয়াই বলুন আর নিজের অভিনয়গুণের কারণেই হোক, শেষ পর্যন্ত জীবনের প্রথম অস্কারের দেখা পেলেন লিওনার্দো ডিকাপ্রিও। অস্কার হাতে নিয়ে হয়তো এবারও তিনি চুপি চুপি নিজেকে বলেছেন, ‘এখানেই কিন্তু থামছি না।’

মন্তব্য