অভিনয়ই তাঁর সব-331398 | রঙের মেলা | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১৪ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৬ জিলহজ ১৪৩৭


অভিনয়ই তাঁর সব

অভিনয় ও মডেলিং—দুই মাধ্যমেই আছেন। তবে মূল গন্তব্য অভিনয়। সৌমিক আহমেদকে নিয়ে লিখেছেন ইসমাত মুমু

৩ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



অভিনয়ই তাঁর সব

তাঁর কপালই বলতে হয়। অনেক ঘুরেছেন জীবনে। বাবার সেনাবাহিনীর বদলির চাকরি। আজ এখানে তো কাল ওখানে। শুধু দেশেই নয়, দেশের বাইরেও। শৈশব-কৈশোরে স্কুল পরিবর্তন করেছেন ১৩টি, কলেজ পরিবর্তন করেছেন তিনটি। তবে বিশ্ববিদ্যালয় এখনো একটিই—নর্থ সাউথ। ছোটবেলায় একবার সৌদি আরব গিয়ে তো বেশ বিপাকেই পড়েছিলেন। বাবার সঙ্গে কেনাকাটা করতে গিয়ে হারিয়ে গেলেন। আরবি ভাষাও জানেন না। এক পাকিস্তানি ভদ্রলোকের দেখা মিলল। তিনি কোনোমতে তাঁর ভাষা বুঝে বাবার নাম জেনে মাইকে অ্যানাউন্স করলেন। অবশেষে পাওয়া গেল বাবার খোঁজ।

বাবা সেনা কর্মকর্তা হওয়ায় নিয়মশৃঙ্খলার ব্যাপারে একচুল নড়চড় হয়নি। এর মধ্যে কি শোবিজে কাজ সম্ভব! ‘প্রথম দিকে বেশ ধকলই গেছে। রাত ৮টা বাজলেই বাসায় চলে এসো। এত রাতে বাইরে কেন? নানা জবাবদিহি, নানা অজুহাত। এখন অবশ্য ঠিক হয়ে গেছে। পালিয়ে-লুকিয়ে যা কাজ করেছি, তার প্রশংসা ঠিকই তাঁর কানে পৌঁছেছে। ভাগ্য ভালো তিনি ভালোভাবেই নিয়েছেন’—বললেন সৌমিক।

বিজ্ঞাপনী সংস্থায় কিছু ছবি দিয়েছিলেন। সেখান থেকেই প্রথম ডাক পেলেন রেদোয়ান রনির ধারাবাহিক ‘রেডিও চকোলেট’-এ। প্রথম দৃশ্যেই পেয়েছেন মোশাররফ করিমকে। “আগে তাঁর অভিনয় টিভিতেই দেখেছি। কিন্তু বাস্তবে ওই প্রথম দেখা। যা হোক, তাঁর সামনে দাঁড়ালাম। হঠাত্ ক্যামেরাম্যান শট নেওয়া থামিয়ে বললেন, ‘ভাই, আপনার পা কাঁপছে, শব্দ পাওয়া যাচ্ছে।’ আমি তাকিয়ে দেখি সত্যিই আমার পা কাঁপছে। হা হা হা”—বললেন সৌমিক।

নাটক দিয়ে শুরু হলেও বিজ্ঞাপনে মুখ দেখিয়েছেন বেশি। এয়ারটেল, ক্লোজআপ, ইস্পাহানি, মোজো, সিম্ফনিসহ বেশ কিছু ব্র্যান্ডের মডেল হয়েছেন। তবে ক্যারিয়ারের টার্নিং পয়েন্ট মনে করেন ক্লোজআপ কাছে আসার গল্পের প্রমোশনাল বিজ্ঞাপনটিকে। শবনম ফারিয়ার সঙ্গে মডেল হওয়া সেই বিজ্ঞাপনটি বেশ সাড়া জাগিয়েছে। দুটি ধারাবাহিক প্রচারিত হচ্ছে তাঁর—‘নাইন অ্যান্ড আ হাফ’ ও ‘ঝালমুড়ি’। প্রচারের অপেক্ষায় আছে বেশ কিছু একক নাটক।

গাইতেও পারেন সৌমিক। নিজের ব্যান্ডদলও ছিল। অভিনয়ে ব্যস্ততার কারণে গান এখন অনেকটাই ভুলতে বসেছেন। স্কুলফ্রেন্ডদের নিয়ে একটা গান করেছিলেন, ‘অন্য কেউ’। গানটা রেকর্ডিং করে ভিডিও করার ইচ্ছা তাঁর। ইউটিউব ভিডিও নির্মাণেও ব্যস্ত সৌমিক। তিনিসহ তাঁর দলের স্কুলফ্রেন্ড সালমান মুক্তাদির, সৌভিক, তামিম—সবাই এখন টিভি নাটকে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন।

ভবিষ্যত্ পরিকল্পনা? ‘করপোরেট চাকরি করার ইচ্ছা, কিন্তু অভিনয় ছাড়ব কিভাবে! ১০টা-৫টা চাকরি করাটা  এখন অসম্ভব। কারণ অভিনয়ই আমার সব’—বললেন সৌমিক।

মন্তব্য