kalerkantho


প্রাকৃতিক দুর্যোগে আক্রান্ত রোহিঙ্গা শিশুদের নিয়ে ইউনিসেফের উদ্বেগ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ জুন, ২০১৮ ১০:৫২



প্রাকৃতিক দুর্যোগে আক্রান্ত রোহিঙ্গা শিশুদের নিয়ে ইউনিসেফের উদ্বেগ

ছবি অনলাইন

সাম্প্রতিক বৃষ্টি ও ঝড়ে কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শিবির ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় এতে বসবাসকারী ও শিশুরা বিপর্যয়ের মুখে রয়েছে জানিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ। রোহিঙ্গা শিবিরগুলোর শিশুরা ব্যাপকভাবে স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তা ঝুঁকিতে পড়েছে বলেও অভিমত তাদের।

বৃহস্পতিবার ইউনিসেফ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। তাতে বলা হয়, সাম্প্রতিক ভারি বর্ষণে বন্যা ও পাহাড় ধসের ঘটনায় এক রোহিঙ্গা শিশুর মৃত্যু হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে শতাধিক আশ্রয়কেন্দ্র। এতে শরণার্থী পরিবারগুলোর সুরক্ষা ঝুঁকির মুখে পড়েছে।

ইউনিসেফের বাংলাদেশ প্রতিনিধি এডওয়ার্ড বেগবেদার বলেন, শরণার্থীদের নিরাপদ জায়গায় নিয়ে যাওয়াটা এখনই গুরুত্বপূর্ণ। তবে অনেক পরিবার, যারা গত কয়েক মাস ধরে বিপর্যয়ের মুখোমুখি, তারা নিজেদের বাসস্থান ছেড়ে যেতে অনিচ্ছুক।

সাম্প্রতিক বৃষ্টির পর ইউনিসেফের তাৎক্ষণিক জরিপে দেখা যায়, ঝড়ো হাওয়ায় ক্ষয়ক্ষতির মুখে পড়েছে ক্যাম্পের বাসিন্দাদের ৬৫ শতাংশেরও বেশি। প্রতি চারজনে একজনেরও বেশি পাহাড় ধসের মুখে পড়ছে। এদের ৪ শতাংশ বন্যা দুর্গত।

এছাড়াও প্রায় ৯০০টি আশ্রয়কেন্দ্র, ১৫টি পানি সংগ্রহ কেন্দ্র এবং ২০০টি শৌচাগারসহ ইউনিসেফের স্বাস্থ্যসেবা দেওয়ার দুটি কেন্দ্র, দুটি খাবার বিতরণকেন্দ্রও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

ইউনিসেফ জানিয়েছে, ক্যাম্পে চলাচলের অধিকাংশ রাস্তাই বন্যার পানিতে প্লাবিত। অন্যদিকে গুরুত্ব একটি সড়ক ওষুধ বহনকারী গাড়ি ছাড়া সাধারণের জন্য বন্ধ রাখা হয়েছে।

মৌসুমী বৃষ্টির কারণে ক্যাম্পে বিশেষত ডায়রিয়া ও কলেরার মতো পানিবাহিত রোগসহ অন্যান্য স্বাস্থ্যগত ঝুঁকিও দেখা দিয়েছে।  আরও বিপর্যয় এড়াতে এই হাজার হাজার শিশুদের জন্য জরুরি সহায়তা প্রয়োজন বলে জানিয়েছে ইউনিসেফ।



মন্তব্য