kalerkantho


সিরিয়ার শিশুদের জন্য ৬০০ পুতুল

রংবেরং প্রতিবেদক   

৯ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



সিরিয়ার শিশুদের জন্য ৬০০ পুতুল

সিরিয়া ও ইয়েমেনের যুদ্ধে আক্রান্ত শিশুদের জন্য মুখোশ পরে মানববন্ধন করেছেন অভিনেত্রী কাজী নওশাবা আহমেদ। গতকাল দুপুর ২টা থেকে বিকেল ৫টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত ঢাকার জাতিসংঘ কার্যালয়ের সামনে আরো কয়েকজনকে সঙ্গে নিয়ে দাঁড়ান তিনি। এ সময় যুদ্ধ বন্ধের আহ্বান সংবলিত বিভিন্ন প্ল্যাকার্ড দেখা যায় তাঁদের হাতে। জানতে চাইলে নওশাবা বলেন, ‘সিরিয়া যুদ্ধে বেশি হতাহত হচ্ছে নিষ্পাপ শিশু ও নিরীহ মানুষ, যারা যুদ্ধের কিছুই বোঝে না। সম্প্রতি জাতিসংঘ হেল অন আর্থ ঘোষণা করেছে। তারই পরিপ্রেক্ষিতে আমি জাতিসংঘ অফিসের সামনে যুদ্ধ বন্ধের আহ্বান জানিয়ে দাঁড়িয়েছিলাম। জানি আমার এই কাজে কারো কিছুই যাবে আসবে না। কিন্তু কারো মনুষ্যত্ববোধে যদি একটু নাড়া দিয়ে থাকি তাহলেই আমরা সার্থক।’ শুধু তা-ই নয়, সিরিয়ার শিশুদের জন্য বাংলাদেশের সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের দিয়ে ৬০০ পুতুল বানিয়েছেন। নাম ‘বন্ধু পুতুল’। চান পুতুলগুলো সিরিয়ার শিশুদের কাছে পৌঁছে দিতে। কিন্তু শিপিং ও সিকিউরিটি খরচ এত বেশি যে এ নিয়ে দোলাচলে ভুগছেন নওশাবা। বলেন, ‘১৯৭১ সালেও আমাদের পাশে অনেকেই দাঁড়িয়েছিলেন। সিরিয়ার আজকের শিশুরা যখন বড় হবে এবং জানবে যে তাদের জন্যও সেই সময় এই পৃথিবীর কেউ না কেউ ভেবেছিল, সেটাই হবে আমাদের বড় পাওয়া।’ আগেও চট্টগ্রামের পাহাড়ধস, সাঁওতালপল্লীতে আগুন এবং দিনাজপুরে বন্যাকবলিত শিশুদের মাঝে পুতুল বিতরণ করেছিলেন নওশাবা।


মন্তব্য