kalerkantho

কালিয়াকৈরে নৌকার প্রার্থীর অভিযোগ

মন্ত্রী ও মেয়র আচরণবিধি লঙ্ঘন করেছেন

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি   

২৪ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী ও কালিয়াকৈর পৌরসভার মেয়র আচরণবিধি লঙ্ঘন করে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে প্রচার চালাচ্ছেন। নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী রেজাউল করিম রাসেল গতকাল শনিবার বিকেলে উপজেলার বড়কাঞ্চনপুরে তাঁর বাড়িতে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে রাসেল অভিযোগ করে বলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগ ও বিএনপির জ্যেষ্ঠ নেতারা বিদ্রোহী প্রার্থী কামাল উদ্দিন সিকদারের (আনারস প্রতীক) পক্ষ নিয়ে নৌকার নেতাকর্মীদের বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি দেখাচ্ছেন। এতে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি হচ্ছে। গত শুক্রবার নির্বাচনী এলাকায় নৌকার পক্ষে নেতাকর্মীরা ভোট চাইতে পারেনি। তাদের প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয়েছে। কাঁঠালতলী এলাকায় নৌকার পক্ষের হিন্দুদের হুমকি দেওয়া হচ্ছে। জালশুকা এলাকায় নৌকার তিনজন ও রতনপুরে বাড়িতে গিয়ে এজেন্ট ও নেতাকর্মীদের হুমকি দেওয়া হচ্ছে। মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক এমপি আচরণবিধি লঙ্ঘন করে শুক্রবার দিনব্যাপী সাতটি কেন্দ্রে বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে প্রচার চালিয়েছেন। এতে জনমনে সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। এ ছাড়া কালিয়াকৈর পৌরসভার মেয়র মজিবর রহমান আচরণবিধি লঙ্ঘন করে বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে উঠান বৈঠক করেছেন।

নৌকার প্রার্থী আরো বলেন, মৌচাক, সফিপুর, রতনপুর, চন্দ া, বোর্ডমিল, ভান্নারা, কালিয়াকৈরসহ বেশ কিছু কেন্দ্র খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। কারণ সেসব কেন্দ্রে নিয়োগ দেওয়া এজেন্টরা হুমকির মুখে রয়েছেন। তাঁদের কেউ কেউ এজেন্ট থাকা থেকে বিরত রয়েছেন। তিনি সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান। 

মেয়র মজিবর রহমান বলেন, ‘আমি কোনো উঠান বৈঠক করিনি। কোনো প্রার্থীর পক্ষে প্রচারও করিনি। আমার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ মিথ্যা। তবে নেতাকর্মীদের কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দেওয়ার আহ্বান করেছি।’

 

মন্তব্য