kalerkantho

খিরু নদী রক্ষায় এনআরপিসি চেয়ারম্যান

ভালুকায় এক সপ্তাহের মধ্যে ইটিপি চালু করতে হবে

ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

২৩ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের (এনআরপিসি) চেয়ারম্যান ড. মুজিবুর রহমান হাওলাদার বলেছেন, নদী কারো একার নয়। নদী ব্যবহার করার অধিকার দেশের মানুষের। দখল আর দূষণে নদীগুলো মরে যাচ্ছে, খালে পরিণত হচ্ছে, অস্তিত্ব বিলীন হচ্ছে। আগামী প্রজন্মের জন্য নদীকে বাঁচাতে হবে। পাশাপাশি নদী রক্ষায় মানুষকে সচেতন করে তুলতে হবে। তিনি বলেন, দূষণের কবল থেকে ময়মনসিংহের ভালুকার খিরু নদীর পানি বাঁচানোর জন্য আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে স্থানীয় কলকারখানাসমূহে স্থাপিত ইটিপি দিবারাত্র ২৪ ঘণ্টা চালু রাখার ব্যবস্থা করতে হবে।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে ভালুকায় অনুষ্ঠিত ভালুকা উপজেলার নদী রক্ষা কমিটির এক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কমিশন চেয়ারম্যান এসব কথা বলেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদ কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য দেন জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের সার্বক্ষণিক সদস্য মো. আলাউদ্দিন, ভালুকা মডেল থানার ওসি ফিরোজ তালুকদার, সিনিয়র উপজেলা মত্স্য কর্মকর্তা রুমানা শারমিন, ভালুকা ইউপি চেয়ারম্যান শিহাব আমিন খান, ভালুকা প্রেস ক্লাব সভাপতি কামরুজ্জামান মানিক, কালের কণ্ঠ’র ভালুকা প্রতিনিধি মোখলেছুর রহমান মনির।

উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে ওই সভাটি অনুষ্ঠিত হয়। সভায় জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যানকে জানানো হয়, শিল্পবর্জ্যে চরম দূষণসহ দখলের শিকার হচ্ছে ভালুকার খিরু নদী। এটিকে বাঁচানো প্রয়োজন।

পরে ড. মুজিবুর রহমান শিল্পবর্জ্য দূষণের শিকার খিরু নদী সরেজমিনে পরিদর্শন করেন এবং আগামী এক মাসের মধ্যে খিরু নদীর সীমানা চিহ্নিত করে সীমানা পিলার লাগানোসহ অবৈধ দখলদার উচ্ছেদের ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য স্থানীয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন।

 

মন্তব্য