kalerkantho


চার বছর পর দেখা হলো মা-ছেলের

সাপাহার (নওগাঁ) প্রতিনিধি   

১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০



চার বছর পর দেখা হলো মা-ছেলের

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার টামটা গ্রামের হারিয়ে যাওয়া আমিনা বেগমের সঙ্গে ছেলে সোহেল রানা। ছবি : কালের কণ্ঠ

চার বছর পর মা আমিনা বেগমকে খুঁজে পেলেন ছেলে। মাকে দেখামাত্রই জড়িয়ে ধরেন ছেলে সোহেল রানা। গতকাল সোমবার সকাল ৮টার দিকে নওগাঁর সাপাহারের দীঘিরহাট এলাকায় দেখা হয় মা-ছেলের। এ সময় দুজনের চোখ দিয়েই ঝরছিল খুশির জল।

সাত বছর আগে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেন লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জের টামটা গ্রামের মো. শামসুল হকের স্ত্রী আমিনা। তখন ছয় বছরের মেয়ে মারিয়ম আর তিন বছরের ছেলে আব্দুল কাদেরকে নিয়ে সবার অগোচরে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান তিনি। এর তিন বছর পর ভারতের আসাম রাজ্য থেকে আমিনাকে ‘উদ্ধার’ করেন তাঁর বড় ছেলে সোহেল। কিন্তু আজও ভাই-বোনের খোঁজ পাননি তিনি। ভারত থেকে খুঁজে পাওয়ার মাত্র কয়েক মাস পরই আবার নিরুদ্দেশ হন আমিনা। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাঁকে না পেয়ে হতাশ হয়ে পড়ে স্বজনরা। এর মধ্যে গত বছর দীঘিরহাটে যান।  মাঝেমধ্যে আরিফ ফটোস্ট্যাট দোকানের মালিক মো. রমজান আলী আমিনার খোঁজখবর নিতেন। অনেক চেষ্টার পর গত রবিবার বিকেলে তাঁর নাম-ঠিকানা জানতে পারেন রমজান। পরে মোবাইল ফোনে লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ থানায় কথা বলেন তিনি। থানার মাধ্যমে তিনি আমিনার ছেলে সোহেলের সঙ্গে কথা বলতে সক্ষম হন। মায়ের খোঁজ পেয়ে আর স্থির থাকতে পারেননি সোহেল। সঙ্গে সঙ্গে দীঘিরহাটে ছুটে আসেন তিনি।

 



মন্তব্য