kalerkantho


শাজাহানপুরে পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা আদায়!

শাজাহানপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি   

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০



বগুড়ার শাজাহানপুরে পরীক্ষাকেন্দ্র পরিবর্তনের নামে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে জামুন্না পল্লীবন্ধু স্কুল অ্যান্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে। এ ব্যাপারে সম্প্রতি বেশ কয়েকজন পরীক্ষার্থীর অভিভাবক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন অভিভাবক জানান, তাঁর ছেলে এবার জামুন্না পল্লীবন্ধু স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে। পরীক্ষাকেন্দ্র ছিল কাছের আড়িয়া রহিমাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়ে। কিন্তু প্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নাজমুন নাহার দূরবর্তী কেন্দ্র মাঝিড়া মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ে পরীক্ষা দেওয়ার জন্য ৬৮ জন পরীক্ষার্থীর কাছ থেকে এক হাজার টাকা করে কেন্দ্র ফি আদায় করেন। এ ক্ষেত্রে সেখানে ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুলের পরীক্ষার্থীদের সঙ্গে পরীক্ষা দিলে ভালো রেজাল্ট হবে—এমন প্রলোভন দেখানো হয়। এমনকি টাকা আদায় করা হয় অন্যান্য ক্লাসের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকেও।

দশম শ্রেণির একজন ছাত্র জানায়, দশম শ্রেণির ৫৮ জন শিক্ষার্থীর কাছ থেকে ৫০০ টাকা করে নেওয়া হয়েছে। নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের কাছে চাওয়া হয়েছিল। কিন্তু তারা এখনো দেয়নি। অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ২০০ টাকা করে নেওয়া হয়। তবে কোনো পরীক্ষার্থীর কাছ থেকে টাকা নেওয়া হয়নি দাবি করে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নাজমুন নাহার জানান, প্রতিষ্ঠানের তহবিল থেকেই কেন্দ্র পরিবর্তনের আর্থিক জোগান দেওয়া হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছা. ফুয়ারা খাতুন জানান, কেন্দ্র পরিবর্তনের নামে কোনো শিক্ষার্থীর কাছ থেকে টাকা নেওয়ার এখতিয়ার নেই। বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 



মন্তব্য