kalerkantho


সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ

চাঁদপুরে হয়রানির শিকার ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থীরা

চাঁদপুর প্রতিনিধি   

১৫ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



চাঁদপুরের পাঁচটি আসনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী এবং নেতাকর্মীরা পুলিশি হয়রানি ও নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন। এর থেকে পরিত্রাণ পেতে নির্বাচন কমিশনের হস্তক্ষেপ চেয়েছেন তাঁরা। গতকাল চাঁদপুর প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এসব কথা জানান জেলা নেতারা।

লিখিত বক্তব্যে ঐক্যফ্রন্টের সদস্যসচিব অ্যাডভোকেট সেলিম আকবর বলেন, মনোনয়নপত্র দাখিলের পর থেকে পুলিশ এবং সরকার দলের লোকজন প্রার্থী ও নেতাকর্মীদের হয়রানি করছে। নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার, হামলা, প্রচারণায় বাধা দেওয়া হচ্ছে। এ থেকে পরিত্রাণের জন্য নির্বাচন কমিশনের হস্তক্ষেপ চায় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।

ঐক্যফ্রন্টের জেলা আহ্বায়ক সফিউদ্দিন আহমেদ বলেন, চাঁদপুরের প্রতিটি আসনে বিএনপির নেতাকর্মীরা পুলিশি হয়রানির শিকার হচ্ছে।

চাঁদপুর-৩ আসনের ধানের শীষের প্রার্থী, জেলা বিএনপির আহ্বায়ক শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক বলেন, ‘চাঁদপুর সদর ও হাইমচর থানার ওসি আমাদের নেতাকর্মীদের হয়রানি করছে।’ চাঁদপুর-২ আসনের প্রার্থী ড. জালাল উদ্দিন বলেন, পুলিশি হয়রানির কারণে দলীয় নেতাকর্মীরা বাসাবাড়িতে অবস্থান করতে পারছে না। চাঁদপুর-৪ আসনের প্রার্থী এম এ হান্নান বলেন, ‘নানাভাবে হয়রানির শিকার হচ্ছেন আমার নেতাকর্মী ও সমর্থকরা।’

সংবাদ সম্মেলনে আরো বক্তব্য দেন রাশেদা বেগম হীরা, অ্যাডভোকেট ফজলুল হক সরকার, আব্দুল হামিদ মাস্টার প্রমুখ।

 



মন্তব্য