kalerkantho


রাস্তার উন্নয়নকাজে অনিয়মের অভিযোগ

রামপাল (বাগেরহাট) প্রতিনিধি   

১৮ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



বাগেরহাটের রামপালে একটি রাস্তার উন্নয়নকাজে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে স্থানীয় লোকজন এলজিইডির প্রধান নির্বাহী প্রকৌশলী বরাবর অভিযোগ দেওয়ার পর প্রায় দুই সপ্তাহ কেটে গেলেও কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। রামপালে খুলনা-মোংলা মহাসড়কের ফয়লাহাট খানজাহান আলী নির্মাণাধীন বিমানবন্দরের সামনে থেকে ঝালবাড়ি অভিমুখী খুলনা-মোংলা রেলপথ পর্যন্ত মাত্র পৌনে এক কিলোমিটার রাস্তার উন্নয়নকাজ হচ্ছে। সরেজমিনে দেখা যায়, রাস্তার দুই পাশে ভাঙন ঠেকাতে পিচের খালি ব্যারেল কেটে বল্লি পুঁতে পাইলিং ব্যবস্থা করে বালু ভরাট করা হয়েছে। রাস্তার দক্ষিণ পাশে ওই পাইলিংয়ের বেশির ভাগই ধসে পড়েছে। রাস্তায় ফেলা হয়েছে অতি নিম্নমানের ইটের খোয়া। এ অবস্থায় যানবাহন চলাচল করায় রাস্তার অধিকাংশ স্থান ধসে উঁচু-নিচু হয়েছে। নির্মাণপ্রতিষ্ঠানের লোকজন ইটের খোয়ার পরিবর্তে পাথরকুচির সঙ্গে সিমেন্ট-বালুর মিশ্রণ ঘটিয়ে জমাট বেঁধে ধসে যাওয়া স্থানে ফেলে ভরাট করেছে। ঢাকার মহাখালীর ইউডিসি নামের একটি নির্মাণপ্রতিষ্ঠান ওই রাস্তা উন্নয়নকাজের দায়িত্ব পেয়েছে বলে জানা গেছে। প্রকল্পের ব্যয়সংবলিত কোনো সাইনবোর্ড দেওয়া হয়নি। ওই নির্মাণপ্রতিষ্ঠানের স্থানীয় প্রকৌশলী তারিকুল ইসলামের কাছে নিম্নমানের খোয়া ব্যবহার করার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এ বিষয় আমি কিছুই বলতে পারব না।’ তিনি এ প্রতিবেদকে ঢাকায় প্রতিষ্ঠানটির ডিপিএম মাসুদের সঙ্গে কথা বলার জন্য পরামর্শ দেন। এ ব্যাপারে মাসুদের বক্তব্য নিতে তাঁর মোবাইল নম্বরে একাধিকবার কল দেওয়া হলেও তিনি ধরেননি।  এ বিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী মো. গোলজার হোসেন বলেন, ‘আমিও শুনেছি ওই রাস্তায় নিম্নমানের খোয়া ব্যবহার করা হচ্ছে। আমি নিজে দুই থেকে এক দিনের মধ্য ওই রাস্তা দেখতে যাব। তারপর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’



মন্তব্য