kalerkantho


সান্তাহারে মেয়রের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি   

১৮ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০



বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার পৌর মেয়র তোফাজ্জল হোসেন ভুট্টু প্রায় এক কোটি টাকারও বেশি আত্মসাৎ করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। তিনি পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদকও।

বগুড়া জেলা প্রশাসক বরাবরে দেওয়া পৌর সভার ২৫ কর্মচারী স্বাক্ষরিত এসংক্রান্ত একটি অভিযোগপত্র গণমাধ্যমকর্মীদের হস্তগত হয়েছে। মেয়র ছাড়াও পৌর প্রকৌশলীর দায়িত্বরত সচিব এবং হিসাবরক্ষককে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

পৌরসভার কর্মচারীদের প্রায় পাঁচ বছর ধরে বেতন-ভাতা বকেয়া পড়ায় তারা মেয়র, সহকারী প্রকৌশলী কাম সচিব এবং হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তার অনিয়ম ও দুর্নীতিকে দায়ী করেছেন। এই তিনজনের বিরুদ্ধে ৩০ সেপ্টেম্বর পৌরসভার মাসিক সভায় বিভিন্ন অভিযোগ আলোচিত হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে পাঁচ সদস্যের অভ্যন্তরীণ তদন্ত কমিটি গঠন করে প্রাথমিকভাবে আট খাতে প্রায় এক কোটি টাকা আত্মসাতের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে পৌর সভার তিন রোলার বেআইনিভাবে বছরব্যাপী ব্যক্তিপ্রতিষ্ঠানকে দিয়ে ১০ লাখ টাকা, পৌরসভার দৈনিক ভিত্তিক শ্রমিক খাতে প্রতিমাসে সাত শ্রমিক বেশি দেখিয়ে প্রায় পাঁচ লাখ টাকা, মাছের আড়ত নির্মাণের নামে ১৩ লাখ টাকা, সারের বাফার গুদাম প্রতিষ্ঠানের বকেয়া কর আদায় করে ৪৭ লাখ টাকার এফডিআর করার নামে এবং কুকুর কামড়ানো ভ্যাকসিন কেনার নামে দুই লাখ, বিভিন্ন জাতীয় দিবস পালনের নামে এক লাখ এবং এনজিও প্রতিষ্ঠানকে ঘর বরাদ্দ দিয়ে পাওয়া পাঁচ লাখ টাকা এবং প্রকৌশলী কাম সচিব ও হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তার নামে গোপন প্রভিডেন্ট ফান্ডে ১০ লাখ টাকা।

এ বিষয়ে মেয়র তোফাজ্জল হোসেন ভুট্টুর বক্তব্য পাওয়া যায়নি।



মন্তব্য