kalerkantho


‘না খেয়ে মরে যাব তবু ভিক্ষা করব না’

ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

১৫ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০



অর্ধশত বছর ধরে রিকশার প্যাডেল ঘুরিয়ে জীবন চালাচ্ছেন। কিন্তু শরীরটা এখন আর পরিশ্রম নিতে পারছে না। তার পরও সংসারের ঘানি টানতে হাড়ভাঙা পরিশ্রম করে যাচ্ছেন ত্রিশাল উপজেলার পাঁচপাড়া গ্রামের আব্দুল জব্বার। বয়স ৮০ ছুঁইছুঁই। এখনো অবসরে যাওয়ার সুযোগটুকু পাননি। তিনি ত্রিশাল পৌরসভার নওধার এলাকার মৃত আরফান আলীর ছেলে। ভিক্ষাবৃত্তিকে কঠিনভাবে ঘৃণা করেন এই প্রবীণ রিকশাচালক। চিৎকার করে বলে ওঠেন, ‘না খেয়ে মরে যাব, তবু ভিক্ষা করব না।’

ত্রিশাল বাজারে প্রবেশপথে সুতিয়া নদীর সেতুর ওপর দেখা হয় জব্বার মিয়ার সঙ্গে। যাত্রী ছাড়াই খালি রিকশা নিয়ে হাঁপিয়ে হাঁপিয়ে পার হচ্ছিলেন তিনি। চোখে-মুখে হতাশার ছাপ। জোড়াতালির মরিচা পড়া রিকশাটিও অনেক পুরনো। বর্তমানে ত্রিশালে ব্যাটারি ছাড়া কোনো রিকশা তেমন একটা চোখে পড়ে না। কিন্তু জব্বার মিয়ার রিকশায় কোনো ব্যাটারি নেই। আর এ জন্য তার রিকশায় যাত্রীরা খুব বেশি ওঠে না। আধাবেলা রিকশা চালিয়ে যে ৬০-৭০ টাকা আয় করেন তাতেই তাঁর পরিবারের কোনো রকমে দিন কাটে। ১৪ বছরের একমাত্র ছেলে আবুল কালাম মাদরাসায় পড়াশোনা করছে। অল্প আয় থেকে তাঁর খরচটাও ঠিকমতো দিতে পারেন না জব্বার। সম্পদ বলতে শুধু ভিটাবাড়ি।

 



মন্তব্য