kalerkantho


উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

নলছিটিতে টিকা সংকট, সন্তান নিয়ে ফিরে যাচ্ছেন মায়েরা

নির্দিষ্ট সময়ে টিকা দিতে না পারলে শিশুদের মাম্পস, জ্বর, র‌্যাশ ওঠাসহ নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে

কে এম সবুজ, ঝালকাঠি   

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হাম-রুবেলা (এমআর) টিকা সংকট দেখা দিয়েছে। দেড় মাস ধরে এ টিকা না থাকায় দুশ্চিন্তায় ভুগছেন শিশুর অভিভাবকরা। প্রতিদিন শিশুসন্তানকে টিকা দেওয়ার জন্য স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসে ফিরে যাচ্ছেন মায়েরা। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে এসব টিকা দিতে না পরলে শিশুদের মামস, জ্বর, র‌্যাশ ওঠাসহ নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে বলে বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, দেড় মাস ধরে ৫০ শয্যাবিশিষ্ট নলছিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্টোরে নেই হাম-রুবেলা টিকা। এ ছাড়া চলতি মাসের শুরু থেকে বিভিন্ন প্রকার টিকা সংকট দেখা দেয়। পরে কয়েক প্রকারের টিকা সরবরাহ করা হলেও হাম-রুবেলা টিকার সরবরাহ দেওয়া হয়নি কমপ্লেক্সে। রুটিন অনুযায়ী যে শিশুরা হাম-রুবেলা টিকা পাবে, প্রতিদিন তাদের নিয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসে ফিরে যাচ্ছেন মায়েরা। সন্তানকে সময়মতো টিকা দিতে না পারায় দুশ্চিন্তায় আছেন অভিভাবকরা। কমপ্লেক্সে আসা একাধিক শিশুর মা জানান, নির্দিষ্ট সময়ে টিকা দিতে না পারলে শিশুর ক্ষতি হতে পারে।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে দেখা যায়, সকাল ৯টা থেকে কমপ্লেক্সের নতুন ভবনের পশ্চিম পাশে টিকাদান কেন্দ্রের সামনে শিশুদের নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন কয়েকজন মা। ওই কক্ষের দায়িত্বে থাকা স্বাস্থ্য সহকারী শামীমা ইয়াসমিন দরজা খুলে প্রবেশের পরপরই শিশুদের বিভিন্ন ধরনের টিকা দিতে থাকেন। হাম-রুবেলা টিকা না থাকায় কয়েকজন শিশুর অভিভাবককে তিনি ফিরিয়ে দেন। টিকাদানের কার্ডে নির্দিষ্ট সময় লেখা থাকলেও তা পার হয়ে গেছে অনেকের। এতে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন অভিভাবকরা।

ছেলের জন্য হামের টিকা নিতে আসা শহরের থানাপুল এলাকার বাসিন্দা মাহমুদ হোসেন সিহাব চৌধুরী বলেন, ‘ছেলেকে দীর্ঘদিন ধরে হামের টিকা দেওয়ার জন্য হাসপাতালে ঘুরে বেড়াচ্ছি, সরবরাহ নেই বলে বারবার ফিরিয়ে দিচ্ছে কর্তৃপক্ষ। এ টিকা বাইরে কোথাও বিক্রি হয় না। এটা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে নিতে হয়। এখানে দেড় মাস ধরে পাচ্ছি না। পরে সমস্যা হলে এ দায়ভার কে নেবে!’

নান্দিকাঠি গ্রামের আফছানা আক্তার বলেন, ‘আমার মেয়েকে নিয়ে এই টিকা দিতে হাসপাতালে এসে ফিরে যাচ্ছি। তিন দফায় আমাকে এসে টিকা না দিয়ে যেতে হয়েছে। এখন মনে আতঙ্ক বিরাজ করছে, সময়মতো টিকা দিতে না পারলে কোনো সমস্যা হয় কি না। জরুরি ভিত্তিতে টিকা সরবরাহের দাবি জানাচ্ছি।’

নলছিটি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য সহকারী শামীমা ইয়াসমিন বলেন, ‘প্রতিদিন অসংখ্য মা এখানে হাম-রুবেলার টিকা দেওয়ার জন্য এসে ফিরে যাচ্ছেন। দেড় মাস ধরে আমাদের সরবরাহ না থাকায় দিতে পারছি না।’

নলছিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট (ইপিআই) অঞ্জনা রানী বলেন, সরবরাহ না থাকায় স্টকে হাম-রুবেলা টিকার সংকট রয়েছে। জেলা সিভিল সার্জন অফিস থেকে এসব টিকার সরবরাহ দেওয়া হয়। সেখানেও না থাকায় হাসপাতালের বহির্বিভাগে আসা রোগী ও স্বজনদের ফিরে যেতে হচ্ছে। যক্ষ্মা ও আইপিভি টিকাও শেষ হয়ে যাচ্ছে। সরবরাহ না দিলে এসব টিকা নিতে আসা মানুষদের ফিরে যেতে হবে।’

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মানস কৃষ্ণ কুণ্ডু বলেন, ‘নির্দিষ্ট সময়ে শিশুকে হাম-রুবেলার টিকা প্রয়োগ করা না গেলে মামস, জ্বর, র‌্যাশ ওঠাসহ নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বেড়ে যায়। ঝালকাঠি সিভিল সার্জন অফিসেও হাম-রুবেলার টিকা সরবরাহ নেই। কবে নাগাদ হাম-রুবেলার টিকা সরবরাহ পাওয়া যাবে, তা নিশ্চিতভাবে বলতে পারছি না। আমরা বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি।’



মন্তব্য