kalerkantho


হাট বেদখল, বেচাকেনা মহাসড়কে

ঘাটাইল (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি   

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



হাট বেদখল, বেচাকেনা মহাসড়কে

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার হামিদপুর হাটের জায়গা বেদখল হয়ে যাওয়ায় মহাসড়কে চলছে কেনাবেচা। ছবি : কালের কণ্ঠ

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার হামিদপুর হাটের জায়গা অবৈধভাবে দখলে নিয়ে অর্ধশত দোকান নির্মাণ করেছে স্থানীয় প্রভাবশালীরা। হাটের জায়গা দখল হওয়ায় ঝুঁকি নিয়ে টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ মহাসড়কের ওপর চলছে বেচাকেনা। বেদখল হওয়া জায়গা উদ্ধার করার জন্য জেলা প্রশাসক বরাবর লিখিত আবেদন করেছেন হাটের ইজারাদার।

লিখিত অভিযোগ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, হামিদপুর হাটটি উপজেলার শত বছরের পুরনো। সপ্তাহে সোম ও বৃহস্পতিবার এই হাট বসে। হামিদপুর, কালিয়াগ্রাম, সালেংকা, কদমতলীসহ উপজেলার দিগড় ও দিঘলকান্দি ইউনিয়নের প্রায় ২০টি গ্রামের হাজারো মানুষের কেনাবেচার প্রধান কেন্দ্রস্থল হামিদপুর হাট। বর্তমানে উপজেলার সবচেয়ে বড় ধানের হাটও এটি। স্থানীয় কৃষকরা বছরজুড়ে ধান বেচাকেনা করে এখানে। অথচ এ জনগুরুত্বপূর্ণ হাটের মূল জায়গায় কমপক্ষে অর্ধশত দোকানঘর তুলে দখল করে রেখেছে স্থানীয় প্রভাবশালীরা। এ কারণে হাটের ভাসমান দোকানিরা মালপত্র রাখার জায়গা না পেয়ে ঝুঁকি নিয়ে টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ মহাসড়কে পসরা বসিয়ে বেচাকেনা করছে।

হাটের ইজারাদার মো. স্বপন মিয়া জানান, দোকানিদের দোকান নিয়ে বসার জায়গা প্রভাবশালীদের অবৈধ দখলে থাকায় হাটের বেচাকেনা আগের তুলনায় অনেক কমে গেছে। সেই সঙ্গে সরকারের রাজস্ব কমে এসেছে। হাটের জায়গা দখলমুক্ত করতে জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা  বরাবর ৩০ এপ্রিল লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। কিন্তু এখনো প্রশাসন কোনো পদক্ষেপ নেয়নি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দিলরুবা আহমেদ বলেন, ‘লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। দ্রুতই আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’



মন্তব্য