kalerkantho


প্রভাবশালীদের বাধায় ডিশ সংযোগ নেই মুক্তাগাছায়

নিজস্ব প্রতিবেদক, ময়মনসিংহ   

১৭ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০



ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় প্রভাবশালীদের বাধার কারণে সাত দিন ধরে ডিশ সংযোগ নেই বলে অভিযোগ করেছে বৃহত্তর ময়মনসিংহের কেবল অপারেটরদের সমিতি। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করে বলা হয়, স্থানীয় প্রভাবশালীরা ডিশ ব্যবসার নিয়ন্ত্রণ নিতে এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে মুক্তাগাছায় ডিশ ব্যবসায়ী রঞ্জন গোস্বামীর প্রতিষ্ঠানে হামলাকারীদের গ্রেপ্তার দাবি করেছেন। নইলে আগামী রবিবার সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত ১০ পর্যন্ত বৃহত্তর ময়মনসিংহের কেবল টিভির সুইস অফ থাকবে বলে সমিতির সদস্যরা জানিয়েছেন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মুক্তাগাছার মিডিয়া কেবল কানেকশনের স্বত্বাধিকারী রঞ্জন গোস্বামী। উপস্থিত ছিলেন ময়মনসিংহের ব্যবসায়ী জাহিদুল ইসলাম পাপ্পু, শফিকুল আলম, শেরপুরের মেহেদী হাসান হালিম, জামালপুরের আখতারুজ্জামান ফারুক, হক তরফদার, গোপিনাথ ঘোষ, টাঙ্গাইলের জুয়েল ও মাজহারুল ইসলাম তারিক। রঞ্জন গোস্বামী জানান, তিনি প্রকৃত ডিশ ব্যবসায়ী। ১৭-১৮ বছর ধরে সরকারের নিয়ম-নীতি মেনে মুক্তাগাছায় ডিশ সংযোগের ব্যবসা করে আসছেন। সম্প্রতি স্থানীয় প্রভাবশালী একটি পক্ষ এ ব্যবসার নিয়ন্ত্রণ নিতে মরিয়া হয়ে ওঠে। তারা তাঁর ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের নিয়ন্ত্রণাধীন ডিশ সংযোগের তারসহ বিভিন্ন যন্ত্রাংশ কৌশলে নষ্ট করে। রাতে চুরি হতে থাকে ডিশের তার। এমনকি গত শনিবার রাতে প্রতিষ্ঠানের মূল্যবান যন্ত্রাংশও প্রতিষ্ঠানের কার্যালয় থেকে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তের দল।

রঞ্জন গোস্বামী বলেন, ‘এ পর্যন্ত তাঁর ৯৮ লাখ টাকার মালামাল চুরি বা নষ্ট অথবা লুট করা হয়েছে। সাত দিন ধরে পুরো মুক্তাগাছা উপজেলায় কোনো ডিশ সংযোগ নেই।’ রঞ্জন গোস্বামী অভিযোগ করেন, মাহবুবুল আলম মনি, জাহাঙ্গীর আলম সোহেল, সাইদুল ফরাজী প্রমুখ তাঁর ব্যবসা দখল করতে চাইছে। এর মধ্যে মাহবুবুল আলম মনি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিল্লাল হোসেনের মেয়ের জামাই। এ জন্য প্রশাসনও পুরো ঘটনায় নীরব ভূমিকা পালন করছে। তিনি থানায় মামলা দিলেও পুলিশ মামলা রেকর্ড করেনি।



মন্তব্য