kalerkantho


সাভার ও রূপগঞ্জে দুই শিশুকে ধর্ষণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার (ঢাকা) ও রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২২ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০



সাভারে দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া আট বছরের একটি শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে রাসেল (২৫) নামের এক বখাটেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার দুপুরে পৌর এলাকার ডগরমোড়া মহল্লা থেকে রাসেলকে গ্রেপ্তার করে সাভার মডেল থানা পুলিশ।

শিশুটির মা এজাহারে উল্লেখ করেন, পৌর এলাকার ডগরমোড়া মহল্লায় ভাড়ায় থেকে স্থানীয় বিভিন্ন বাসা-বাড়িতে তিনি গৃহপরিচারিকার কাজ করেন। গত ১৪ জুলাই তাঁর দুই সন্তানকে বাসায় রেখে তিনি কাজে বের হন। বাসায় ফিরে দুই সন্তানের মধ্যে দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া তার আট বছরের শিশুটিকে অসুস্থ দেখতে পান। জিজ্ঞাসা করে জানতে পারেন, তাঁদের প্রতিবেশী লতিফের বাড়ির ভাড়াটিয়া রাসেল (২৫) শিশুটিকে ডেকে তাদের বাসায় নিয়ে যায়। এরপর শিশুটিকে ধর্ষণ করে। পরে বখাটে রাসেল ঘটনাটি কাউকে না বলার জন্য শিশুটিকে ভয়ভীতি দেখায়। ঘটনাটি জানার পর অন্যত্র বসবাসকারী শিশুটির বাবা ও শিশুটির স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলাপ করে তিনি গত বৃহস্পতিবার  একটি মামলা করেন। আসামি রাসেল মাদারীপুরের রাজের থানার শ্রী কৃষ্ণদী গ্রামের আলমগীর ফকিরের ছেলে।

এ ব্যাপারে সাভার মডেল থানার ওসি মহসিনুল কাদির বলেন, ‘শনিবার ডগরমোড়া এলাকা থেকে অভিযুক্ত রাসেলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। শিশুটিকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানো হয়েছে।’

অন্যদিকে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার কাঞ্চনবাজার এলাকায় গত বৃহস্পতিবার রাতে এক শারীরিক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় দুজনকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার সকালে কিশোরীর মা রূপগঞ্জ থানায় একটি মামলা করেছেন।

ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগে আটকরা হলো উপজেলার নগরপাড়ার সাদ্দত আলীর ছেলে কবির হোসেন ও বড়ালু পাড়াগাঁওয়ের মহিবুরের ছেলে গাফফার।

নির্যাতিত কিশোরীর মা জানান, তাঁর মেয়ে চনপাড়ায় একটি বিদ্যালয়ে লেখাপড়া করে। বৃহস্পতিবার সে বিদ্যালয়ে যায়নি। এ জন্য বাড়ির লোকজন তাঁকে বকা দিতে পারে—এ ভয়ে সে বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়। ওই দিন সন্ধ্যায় বেলায়েত হোসেন নামের এক সিএনজিচালিত অটোরিকশাচালক ফোন করে বলে, মেয়েটি ডেমরা থানার স্টাফ কোয়ার্টার এলাকায় আছে। পরে পরিবারের লোকজন সেখানে গিয়েও মেয়েটিকে পায়নি। অটোরিকশাচালকের মোবাইল ফোনটিও বন্ধ পাওয়া যায়। পরে অটোচালক মেয়েটিকে বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে ধর্ষণ করে।

 



মন্তব্য