kalerkantho


চাঁদা না দেওয়ায় শ্রমিকদের মারধর

রাজবাড়ী প্রতিনিধি   

২২ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০



চাঁদা না দেওয়ায় রাজবাড়ীর পদ্মা নদীতে বালুবাহী বাল্কহেড থামিয়ে চার শ্রমিককে মারধর করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ সময় তাদের কাছে থাকা টাকা ও মোবাইল ফোনসেটও ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় গতকাল শনিবার সকালে রাজবাড়ী থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। ১ নম্বর বেড়াডাঙ্গা গ্রামের আব্দুল খালেক মিয়ার ছেলে সোহেল রানা বাদী হয়ে এ মামলা করেন। মামলায় রাজবাড়ী সদর উপজেলার ভবদিয়া গ্রামের বেলায়েত মোল্লার ছেলে শিমুল মোল্লা, দয়ালনগর গ্রামের খলিল মণ্ডলের ছেলে দুলাল মণ্ডল, রামচন্দ্রপুরের লালু সরদারের ছেলে মুস্তাক সরদারসহ অজ্ঞাতপরিচয় আরো দুই-তিনজনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলার বাদী জানান, শরীফ এন্টারপ্রাইজের লাইসেন্সের অধীনে সদর উপজেলার চন্দনী ইউনিয়নের জৌকুড়া ঘাট এলাকায় তিনি বালুর ব্যবসা করেন। সম্প্রতি আসামিরা তাঁর ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে এসে চাঁদা দাবি করে। বিষয়টির সুরাহা করতে তিনি গণ্যমান্য ব্যক্তিদের কাছে অভিযোগ করেন। এতে আসামিরা আরো ক্ষিপ্ত হয়। গত মঙ্গলবার রাতে তাঁর একটি বালুবাহী বাল্কহেড মাওয়া ঘাটে যাওয়ার পথে  একদল দুর্বৃত্ত ট্রলারযোগে এসে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সেটির গতি রোধ করে। দুর্বৃত্তরা চার শ্রমিককে মারধর করে তাদের কাছে থাকা অর্ধলক্ষাধিক টাকা ও মোবাইল ফোনসেট কেড়ে নেয়।



মন্তব্য