kalerkantho


বরিশাল, ওয়ার্ড নম্বর ২৫

জিয়ায় অনীহা, জাকিরে সাড়া

বরিশাল অফিস   

২১ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০



জিয়ায় অনীহা, জাকিরে সাড়া

সাইদুর রহমান জাকির

বরিশাল সিটি করপোরেশনের আটটি ওয়ার্ডকে বর্ধিত হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। এর মধ্যে সাতটি ওয়ার্ডে কমবেশি উন্নয়ন হয়েছে। তবে ২৫ নম্বর ওয়ার্ডে বিন্দুমাত্র উন্নয়ন হয়নি। এ ওয়ার্ডে ১০টি বাঁশের সাঁকো রয়েছে। সামান্য বৃষ্টিতে পুরো ওয়ার্ড পানিতে তলিয়ে যায়। বর্তমান কাউন্সিলর নগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক জিয়াউদ্দিন সিকদার। ২০১৩ সালের সিটি নির্বাচনে ভোটারদের কাছে তিনি এ তিন সমস্যা দূরীকরণের আশ্বাস দিয়েছিলেন। এ আশ্বাসে সাধারণ মানুষ তাঁকে ভোট দিয়ে নির্বাচিতও করেছে। তবে প্রত্যাশা পূরণ হয়নি তাদের। তাই এবার ভোটাররা জিয়াউদ্দিন সিকদারকে প্রতিহত করতে জোট বেঁধেছে। এর বদলে তারা আওয়ামী লীগ সমর্থিত ঠেলাগাড়ি প্রতীকের কাউন্সিলর প্রার্থী যুবলীগ নেতা সাইদুর রহমান জাকিরকে বেছে নিয়েছে। লাটিম প্রতীক নিয়ে লড়ছেন জিয়াউদ্দিন সিকদার। তা ছাড়া ঘুড়ি প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন ইসলামী আন্দোলনের আবু হানিফ।

ওয়ার্ডের বাসিন্দা মো. আকতারুজ্জামান জানান, এ এলাকায় জলাবদ্ধতা থেকে শুরু করে ড্রেনেজ ব্যবস্থার সমস্যা রয়েছে। বর্তমান কাউন্সিলর নানা প্রতিশ্রুতি দিয়েও কথা রাখেননি। তাঁর বদলে সাইদুর রহমানকে ভোট দিয়ে নির্বাচন করবেন এলাকাবাসী।

আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী এম সাইদুর রহমান বলেন, ‘পুরো ওয়ার্ড জলাবদ্ধতায় ডুবে আছে। ড্রেনের নোংরা পানি সড়কে উঠছে। গত ১০ বছরেও এলাকায় কোনো উন্নয়ন হয়নি। কোটি কোটি টাকা বরাদ্দ এলেও তা লুটপাট হয়ে গেছে। আমি যদি নির্বাচিত হই, তবে এলাকার উন্নয়নে নিজেকে নিয়োজিত করব। জলাবদ্ধতা নিরসন করব। যুবসমাজকে কাজে লাগাব। বর্ধিত এলাকার মানুষের জন্য নিরাপদ থাকার ব্যবস্থা ও যাতায়াতের জন্য পাকা সড়ক করব। তরুণদের মাদকাসক্তের হাত থেকে রক্ষা করব।’

এম সাইদুর রহমান আরো জানান, তিনি নির্বাচিত হলে নারীদের জন্য সেলাই প্রশিক্ষণকেন্দ্র, ওয়ার্ডে চিকিৎসাকেন্দ্র স্থাপন ও ফ্রি অ্যাম্বুল্যান্স সার্ভিসের ব্যবস্থা করবেন। এর বাইরেও তিনি মায়েদের জন্য ডে-কেয়ার সেন্টার, কর্মজীবী নারীদের আবাসন গড়ে তুলবেন।

 



মন্তব্য