kalerkantho


কালিয়াকৈরে পিচ উঠে সড়ক বেহাল

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি    

২০ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০



কালিয়াকৈরে পিচ উঠে সড়ক বেহাল

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার সফিপুর-বড়ইবাড়ী সড়কের বোর্ডমিল এলাকায় পিচঢালাই উঠে খানাখন্দ তৈরি হয়েছে। ছবি : কালের কণ্ঠ

কালিয়াকৈরের সফিপুর-বড়ইবাড়ী আঞ্চলিক সড়কের পিচ ঢালাই উঠে গিয়ে বড় বড় গর্ত ও খানাখন্দের সৃষ্টি হয়েছে। এ কারণে সড়কটি যানবাহন চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। ওই সড়ক দিয়ে উত্তরাঞ্চলের শতাধিক গ্রামের লোকজন চলাচল করে। দ্রুত সড়কের খানাখন্দ মেরামত করা না হলে চলতি বর্ষা মৌসুমে কালিয়াকৈরের উত্তরাঞ্চলের সঙ্গে শিল্পাঞ্চল সফিপুরসহ উপজেলা সদরের যোগাযোগ বন্ধ হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

প্রায় দুই বছর আগে সড়কটির নামমাত্র সংস্কারকাজ করা হয়। ওই সময় নিম্নমানের ইট-বালু দিয়ে খানাখন্দ মেরামত করা হয়। তাই বছর না ঘুরতেই সড়কের বিভিন্ন অংশের পিচ ঢালাই উঠতে থাকে। ফলে সংস্কারকাজের দুই বছরের মাথায় এসে সড়কটির অবস্থা বেহাল হয়ে পড়েছে। এ সড়ক দিয়ে এখন যান চলাচল তো দূরের কথা, পায়ে চলাও কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে। এতে উপজেলার সফিপুর, পূর্ব চান্দরা, পাশাবাজার, মাটিকাটা, কারলসুরিচালা, সুরিচালা, সিনাবহ, ভাঙ্গালজাঙ্গাল, কাঁচারস, বাঁশতলী, তালতলী, দিঘিবাড়ী, কালিয়াদহ, বড়ইবাড়ী, কুন্দাঘাটা, পিপড়াছিট, মদনখালী, বোর্ডমিল, হাঁটুরিয়াচালা, বালুচরা, ছাপরা মসজিদ, ঢোলসমুদ্র, কোটামনিসহ প্রায় ৫০ গ্রামের বাসিন্দারা চলাচলে চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে। সৃষ্ট বড় বড় গর্ত ও খানাখন্দের কারণে সড়কে প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা। দ্রুত সড়কটি সংস্কার করা না হলে চলতি বর্ষা মৌসুমে কালিয়াকৈরের উত্তরাঞ্চলের সঙ্গে শিল্পাঞ্চল সফিপুরসহ উপজেলা সদরের যোগাযোগ বিঘ্নিত হবে ।

যাত্রী আরফান আলী বলেন, ‘সড়কটির পিচ ঢালাই উঠে একি হাল হয়েছে! সড়ক দিয়ে হেঁটে চলাচল করাও কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে। হেলেদুলে চলায় যানবাহনের ভেতর বসে থাকা যায় না।’

পরিবহনের চালক মান্নান বলেন, ‘সড়কটিতে বড় বড় খানাখন্দ হওয়ায় প্রতিনিয়ত গর্তের মধ্যে পড়ে গাড়ির বিভিন্ন যন্ত্রাংশ নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। প্রায়ই ছোট-বড় দুর্ঘটনা ঘটছে। দুর্ঘটনার ভয়ে যাত্রীরাও গাড়িতে উঠতে চাইছে না। দ্রুত সড়কটি মেরামত করা না হলে আগামীতে এ সড়কে যানবাহন চলাচল অসম্ভব হয়ে পড়বে।’

কালিয়াকৈর উপজেলা প্রকৌশলী সাজ্জাদ কবীর বলেন, ‘ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় পানি জমে সড়কটির এ অবস্থা হয়েছে। এ ছাড়া সড়কটির কিছু অংশ আরসিসি ঢালাই দেওয়া হয়েছে। ওই অংশ এখনো ঠিক রয়েছে। তবে পিচ ঢালাই অংশে পানি জমে খানাখন্দের সৃষ্টি হয়েছে। সড়কটি মেরামতের জন্য সংশ্লিষ্ট অধিদপ্তরে আবেদন পাঠানো হয়েছে।’



মন্তব্য