kalerkantho


জামালপুর-ময়মনসিংহ

ব্রহ্মপুত্রে ভাঙন ঝুঁকিতে সড়ক

জামালপুর প্রতিনিধি   

১৬ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০



জামালপুর পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের হরিপুর গ্রামে তীব্র ভাঙন দেখা দিয়েছে। গত তিন দিনে স্থানীয় পাঁচটি পরিবারের ১১টি ঘরসহ বহু জমি ব্রহ্মপুত্র নদে বিলীন হয়ে গেছে। ইতিমধ্যে ২৫টি পরিবার তাদের ঘরবাড়ি সরিয়ে নিয়েছে। তীব্র ভাঙন অব্যাহত থাকায় জামালপুর-ময়মনসিংহ সড়কের জামালপুর পৌরসভার হরিপুর অংশ ভাঙনের ঝুঁকিতে রয়েছে।

শুক্রবার বিকেলে সরজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, হরিপুর গ্রামে জামালপুর-ময়মনসিংহ সড়ক থেকে ব্রহ্মপুত্র নদ মাত্র ৩০ ফুট দূরত্বে রয়েছে। স্থানীয়রা জানায়, ভাঙন রোধে এখনই জরুরি পদক্ষেপ না নেওয়া হলে সড়কটিসহ বিস্তীর্ণ এলাকা ব্রহ্মপুত্র নদে বিলীন হয়ে যাবে। সাত দিন ধরে আকস্মিক ভাঙন শুরু হওয়ায় এলাকাবাসী আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে। স্থানীয় বৃদ্ধ মোফাজ্জল হোসেন বলেন, ‘ড্রেজার দিয়ে বালু তোলার কারণে এইখান দিয়া নদী মেলা গভীর অইছে। এহন আমগরে বাড়িঘর, জমিজমা, গাছগাছালি সবই নদীয়ে খাইতাছে। আমরা অহন কই যামু?’ তাঁর মতো ক্ষতিগ্রস্ত আরো অনেকেই জানায়, শুকনো মৌসুমে ব্রহ্মপুত্র নদের পশ্চিম তীরঘেঁষা এলাকা থেকে অসংখ্য ড্রেজার মেশিন বসিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করায় ব্রহ্মপুত্র নদের গভীরতা বেড়েছে। চলতি বর্ষায় এসব স্থানে ঘূর্ণিপাক সৃষ্টি হয়ে ভাঙন দেখা দিয়েছে। ফলে ব্রহ্মপুত্রের তীরবর্তী এলাকা ব্যাপকভাবে ভাঙছে। স্থানীয়রা ভাঙন রোধে জেলা প্রশাসন ও পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষের কাছে জরুরি পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানিয়েছে।

জামালপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র মো. ফজলুল হক আকন্দ বলেন, ‘ভাঙনকবলিত হরিপুর গ্রাম আমার নিজের এলাকা। তিন দিন আগে জামালপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের সহকারী প্রকৌশলী মো. আশিকুর রহমানকে সঙ্গে নিয়ে ওই এলাকা পরিদর্শন করেছি।’



মন্তব্য