kalerkantho


কেরানীগঞ্জে গৃহবধূর আত্মহনন

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি   

২২ মে, ২০১৮ ০০:০০



কেরানীগঞ্জ মডেল থানা এলাকায় শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন দিয়ে এক সন্তানের জননী আমেনা বেগম (২১) আত্মহত্যা করেছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। গতকাল সোমবার ভোরে নিহতের বাবার বাড়ি তারানগর ইউনিয়নের চণ্ডীপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে কেরানীগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন শেষে ময়নাতদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। আমেনা বেগমের স্বামীর নাম ইসমাইল হোসেন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে সৌদিপ্রবাসী।

স্থানীয়রা জানান, আড়াই বছর আগে পার্শ্ববর্তী কানারচর এলাকার সৌদিপ্রবাসী ইসমাইল হোসেনের সঙ্গে আমেনা বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের কয়েক মাস পর ইসমাইল ফের সৌদি চলে যান। এর কিছুদিন পর আমেনা বেগমের এক কন্যাসন্তান জন্ম হয়। বর্তমানে কন্যার বয়স দেড় বছর।

আমেনার বাবা ইকবাল হোসেন বলেন, ভোর ৬টার দিকে ঘুম থেকে উঠে নামাজ পড়ার ঘরের দরজার নিচ দিয়ে ধোঁয়া বের হতে দেখে এগিয়ে যান তিনি। এ সময় ঘরের দরজা ভেতর থেকে বন্ধ ছিল। পরে দরজা ভেঙে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় আমেনার লাশ মেঝেতে পড়ে থাকতে দেখেন।

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার ওসি শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, ‘খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ সময় ঘরের কিছু কাপড়চোপড় পোড়া দেখতে পান। এ ছাড়া মৃতদেহের শরীর থেকে কেরোসিন তেলের গন্ধ পাওয়া যায়। এসব কারণে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, আমেনা বেগম শরীরে কেরোসিন ঢেলে আত্মহত্যা করেছে।’


মন্তব্য