kalerkantho


সোনারগাঁয় ৬৬ জনকে অবৈধ স্থাপনা সরানোর নির্দেশ

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১৯ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার মহজমপুর বাজারের ৬৬ জন অবৈধ দখলদার দোকানদারকে আগামী সাত দিনের মধ্যে অবৈধ স্থাপনা অপসারণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। গতকাল রবিবার সোনারগাঁ উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি (এসি ল্যান্ড) বি এম রুহুল আমিন রিমন এ নির্দেশ দেন।

লিখিত উচ্ছেদ নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে, কাজীপাড়া মৌজায় ১ নম্বর খাস খতিয়ানভুক্ত জমি, যার শ্রেণি বাজার এবং বারদী বাজার পেরিফেরিভুক্ত জমি। এই জমিতে বিনা অনুমতিতে অবৈধভাবে দোকানঘর, পাকা, আধাপাকাসহ বিভিন্ন অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করা হয়েছে। সরকারি জমিতে অনুমতি ছাড়া অবৈধভাবে স্থাপনা নির্মাণ করায় সাত দিনের মধ্যে সব অবৈধ স্থাপনা নিজ উদ্যোগে অপসারণ করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হলো। অন্যথায় বিধি মোতাবেক আইননানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। মহজমপুর বাজারের মুদি দোকানদার আনোয়ার হোসেন ভূইয়া, ওষুধের দোকানদার আব্দুল লতিফ মেম্বার, মুরগির দোকানদার সাহেদ সরকার, ওষুধের দোকানদার সামসুল হক, মুদি দোকানদার এনামুল হক, আজহারুল ইসলাম, সোনার দোকানদার আজহারুল ইসলাম, মুদি দোকানদার রমজান মিয়া, মিষ্টির দোকানদার কাজী সাদত হোসেন, ওষুদের দোকানদার হাবিব উল্লাহ ভূইয়া, মুদির দোকানদার কাজী ফজলুল করিম, ওষুধের দোকানদার কাজী আব্দুল বাসেদ, চায়ের দোকানদার কাজী তোফাজ্জল, ওষুধের দোকানদার কাজী মাহাবুব বকুলসহ ৬৬ জন দোকানদারকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের এই নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, দীর্ঘদিন ধরে মালিকরা সরকারি জায়গা দখল করে ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ও দোকানঘর নির্মাণ করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। সরকার হারাচ্ছে লাখ লাখ টাকার রাজস্ব। দখলদাররা ক্ষমতাসীন ও বিএনপির প্রভাবশালী লোক হওয়ায় এত দিন তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়নি স্থানীয় প্রশাসন। স্থানীয় প্রশাসনের বিরুদ্ধে বিরূপ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছে এলাকাবাসী। অবিলম্বে এসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে সরকারি জমি দখলমুক্ত করার আহ্বান জানিয়েছে তারা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সোনারগাঁ উপজেলার এসি ল্যান্ড বি এম রুহুল আমিন রিমন বলেন, ‘এক সপ্তাহের মধ্যে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ না করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) জসিম উদ্দিন হায়দার বলেন, ‘অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’



মন্তব্য