kalerkantho


সোনারগাঁ

অবৈধভাবে বালু তোলায় ১১ জনের জেল

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১৩ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



সোনারগাঁর মেঘনা নদীতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের অভিযোগে ১১ জন শ্রমিককে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল সোমবার দুপুরে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

এ বিষয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) বি এম রুহুল আমিন রিমন জানান, উপজেলার মেঘনা নদীর হাড়িয়া এলাকায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের সময় ১১ জন শ্রমিককে হাতেনাতে গ্রেপ্তার করে ১৫ দিন করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হচ্ছে কুমিল্লার সোহাগ মিয়া, বরিশালের কামাল হোসেন, শহিদুল ইসলাম, সেলিম মিয়া, রাজন মিয়া, গোপালগঞ্জের জাহিদ শেখ, সোহেল মিয়া, ভোলার সুমন মিয়া, মনির হোসেন, পিরোজপুরের রাসেল মৃধা ও নারায়ণগঞ্জের কদমীচর গ্রামের আলী হোসেন।

জানা যায়, বৈদ্যের বাজার ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রউফের ছেলে মাহমুদুল্লাহ, ইউপি সদস্য ইসমাইল হোসেনসহ একটি শক্তিশালী সিন্ডিকেট আওয়ামী লীগের নাম ভাঙিয়ে গত দুই মাস ধরে মেঘনা নদীতে অবৈধভাবে ড্রেজার দিয়ে আমান সিমেন্ট নামের একটি কারখানায় বালু ভরাট করে আসছে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সোমবার অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মাহমুদুল্লাহ ও ইসমাইল হোসেন বলেন, তাঁরা এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত নন। সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শাহিনুর ইসলাম বলেন, ‘অবৈধভবে বালু উত্তোলনের সঙ্গে জড়িতদের কোনোভাবেই ছাড় দেওয়া হবে না। তাঁদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা অব্যাহত থাকবে।’

 



মন্তব্য