kalerkantho


হবিগঞ্জে সংঘর্ষে আহত ৩০

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



হবিগঞ্জে চা বাগানের জায়গা দখলকে কেন্দ্র করে পুলিশের সঙ্গে গ্রামবাসীর সংঘর্ষে পুলিশসহ ৩০ জন আহত হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ৭৭ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে পুলিশ। গতকাল বুধবার দুপুরে হবিগঞ্জের বাহুবলে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বাহুবলের সুন্দ্রাটিকি গ্রামে জেমস ফিনলে কম্পানির রশিদপুর চা বাগানের অধীন রামপুরের ১৭ একর জমিতে নতুন চা গাছ লাগানোকে কেন্দ্র করে গ্রামবাসীর সঙ্গে চা বাগান কর্তৃপক্ষের বিরোধ দেখা দেয়। উপজেলা প্রশাসন এ নিয়ে একাধিকবার বৈঠক করেও কোনো সমাধান করতে পারেনি। গত মঙ্গলবার গভীর রাতে বিরোধপূর্ণ জমিতে ঘর তৈরি করে গ্রামবাসী। বুধবার সকালে বাহুবল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জসিম উদ্দিন পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে গ্রামবাসীকে স্থাপনা সরিয়ে নিতে অনুরোধ করেন। সরিয়ে নিতে রাজি না হওয়ায় পুলিশ উচ্ছেদ অভিযান শুরু করে। এ সময় পুলিশ ও গ্রামবাসীর সংঘর্ষে সহকারী উপপরিদর্শক মাজেদসহ সাতজন পুলিশ সদস্য ও ২৩ গ্রামবাসী আহত হয়।

বাহুবল উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা জসিম উদ্দিন জানান, রশিদপুর চা বাগানের অধীন রামপুর চা বাগানের নামে ১৭ একর সরকারি খাস জায়গা লিজ নেওয়া ছিল। কিন্তু এ জায়গা সুন্দ্রাটিকি গ্রামের লোকজন অবৈধভাবে দখল করতে গেলে এলাকায় উত্তজনার সৃষ্টি হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশকে গুলি করতে নির্দেশ দেওয়া হয়। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

বাহুবল থানার ওসি (তদন্ত) গোলাম দস্তগীর আহমেদ জানান, অবৈধভাবে জমি দখলের ঘটনায় গতকাল বুধবার দুপুরে পুলিশের সঙ্গে গ্রামবাসী দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় পুলিশ ৭৭ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ও ১৬ রাউন্ড টিয়ার গ্যাসের শেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় বেশ কয়েকজন গুলিবিদ্ধ হয় বলে জানান তিনি।


মন্তব্য