kalerkantho


সোনারগাঁ

গৃহবধূকে পিটিয়ে ঘরে তালা, হত্যার চেষ্টা

৪ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয় এক গৃহবধূকে পিটিয়ে ঘরে তালাবদ্ধ করে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে শ্বশুরবাড়ির লোকেরা। গতকাল বুধবার দুপুরে উপজেলার বাইশটেকী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সন্ধ্যায় ওই গৃহবধূর বাবা তিনজনের বিরুদ্ধে থানায় এই অভিযোগ করেন।

লিখিত অভিযোগে বলা হয়েছে, সাদিপুর ইউনিয়নের আন্দারমানিক গ্রামের আবু সাইদের মেয়ে হাফসা আক্তারের সঙ্গে একই ইউনিয়নের বাইশটেকী গ্রামের হযরত আলীর ছেলে সুমন মিয়ার তিন বছর আগে বিয়ে হয়। সোহানা নামে তাঁদের এক বছরের একটি মেয়ে রয়েছে। বিয়ের পর থেকে সুমন, তাঁর মা আকলিমা বেগম ও ভাই সবুজ মিয়া যৌতুকের জন্য বিভিন্ন সময় হাফসাকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালিয়ে আসছিলেন। ইতিমধ্যে যৌতুক বাবদ দুই লাখ ২০ হাজার টাকা আদায় করেছেন তাঁরা। সম্প্রতি হাফসার পরিবারের কাছে আরো এক লাখ টাকা চান সুমন ও তাঁর পরিবার। এ টাকা দিতে অস্বীকার করায় গতকাল দুপুরে সুমন, আকলিমা ও সবুজ হাফসাকে পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখেন। খবর পেয়ে হাফসার বাবা ও পরিবারের লোকজন ঘরের তালা ভেঙে হাফসাকে উদ্ধার করে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দায়িত্বরত মেডিক্যাল অফিসার লায়লা ইয়াসমিন কালের কণ্ঠকে বলেন, আহত গৃহবধূর বাম চোখ, গাল ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাঁকে পিটিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করায় তিনি জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। তাঁকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

আবু সাইদ বলেন, ‘টাকা না পেয়ে আমার মেয়েকে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে জামাই সুমন, তাঁর মা আকলিমা বেগম ও ভাই সবুজ। আমি এর ন্যায়বিচার চাই।’

সোনারগাঁ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) ওবায়েদুল হক বলেন, এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ নেওয়া হয়েছে। অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

কাঁচপুরে পিকআপ ভ্যানসহ ৮৬ কেজি গাঁজা জব্দ সোনারগাঁ উপজেলার কাঁচপুর হাইওয়ে থানার পুলিশ গতকাল বুধবার একটি নম্বরবিহীন পিকআপ ভ্যানসহ ৮৬ কেজি গাঁজা জব্দ করেছে। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।


মন্তব্য