kalerkantho


সোনারগাঁয় মামলা করে বিপাকে বাদী, জিডি

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১১ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁর হাঁড়িয়া বৈদ্যপাড়া গ্রামের এক গৃহবধূ চাঁদাবাজি মামলা করে বিপাকে পড়েছেন। মামলা তুলে নিতে তাঁকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে আসামিরা। এ ব্যাপারে ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে রবিবার থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

সাধারণ ডায়েরিতে উল্লেখ করা হয়েছে, উপজেলার বৈদ্যের বাজার ইউনিয়নের হাঁড়িয়া বৈদ্যপাড়া গ্রামের ব্যবসায়ী রাসেল আহাম্মেদ স্ত্রী শামীমা আক্তারের কম্পিউটারে বানানো ছবি ইন্টারনেটে ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে আমির হোসেন ও ইসমাইল হোসেন তার কাছ থেকে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। টাকা না পেয়ে ওই গৃহবধূকে পিটিয়ে মারাত্মক আহত করা হয়। আহত অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে এলাকাবাসী। এ ব্যাপারে তিনি বাদী হয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলি আদালতে একটি মামলা করেন।

মামলার দায়েরের পর আসামিদের গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠানো হয়। পরে তারা জামিনে বের হয়ে মামলার বাদীকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। এতে মামলার বাদী ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে।

জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে গতকাল তিনি থানায় একটি সাধারণ  ডায়েরি করেছেন।

এ ব্যাপারে মামলার বাদী গৃহবধূ শামীমা আক্তার বলেন, ‘মামলার আসামিরা আদালত থেকে জামিনে এসে আমি ও আমার পরিবারের সদস্যদের মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে। এতে আমরা নিরাপত্তাহীনতায় দিন কাটাচ্ছি।’

অভিযুক্ত আমির হোসেন ও ইসমাইল হোসেন অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘আমরা বাদীকে হত্যার হুমকি দিইনি। আমাদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলাটি প্রত্যাহার করার জন্য অনুরোধ করেছি।’

সোনারগাঁ থানার ওসি (অপারেশন) আব্দুল জব্বার বলেন, এ বিষয়ে একটি সাধারণ ডায়েরি নেওয়া হয়েছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


মন্তব্য