kalerkantho


ফরিদপুর আওয়ামী লীগ

সেক্রেটারির বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফরিদপুর   

১৯ নভেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মাসুদ হোসেনের বিরুদ্ধে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ তোলা হয়েছে। এর প্রতিবাদে ফরিদপুর প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে শনিবার সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ভাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজী হেদায়েতউল্লাহ সাকলাইন ও সাধারণ সম্পাদক ফাইজুর রহমান যৌথভাবে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন কাজী হেদায়েতউল্লাহ সাকলাইন। তিনি বলেন, ‘দলীয় গঠনতন্ত্র উপেক্ষা করে জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মাসুদ হোসেন গত ১১ নভেম্বর ভাঙ্গায় যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদককে বহিষ্কারের ঘোষণা দিয়েছেন। ওই ঘোষণা কোনোভাবেই দলের গঠনতন্ত্রের মধ্যে পড়ে না। একটি পক্ষকে খুশি করতে এবং আগামী সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ভরাডুবি ঘটাতেই সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ’ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বরাত দিয়ে কাজী সাকলাইন বলেন, ‘কেন্দ্রীয় কমিটি ছাড়া জেলা কমিটি কাউকে বহিষ্কার করতে পারে না। তাই আমাদের বহিষ্কারের ঘোষণা জেলা কমিটির এখতিয়ার বহির্ভূত। ’ পরে সংবাদকর্মীদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন ভাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফাইজুর রহমান। সংবাদ সম্মেলনে ভাঙ্গা পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাইদুর রহমানসহ নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এ ব্যাপারে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মাসুদ হোসেন বলেন, ‘ওই দুই নেতার বিরুদ্ধে দলীয় শৃঙ্খলাবিরোধী কর্মকাণ্ডের অভিযোগ পাওয়ার পর জেলা কমিটি তাঁদের কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে। তাঁরা কেউ নোটিশের জবাব দেননি। জবাব না পেয়ে জেলা কমিটি তাঁদের বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নিতে কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে সুপারিশ পাঠিয়েছে। সেই মোতাবেক যুবলীগের ওই সভায় সেদিন সুপারিশের কপিটি পড়ে শোনানো হয়েছে। ’


মন্তব্য