kalerkantho


গাজীপুরে ট্রাকচাপায় শিশু নিহত

‘এ খাবার আমি কার মুখে দেব?’

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর   

১০ অক্টোবর, ২০১৭ ০০:০০



শখের সাইকেল নিয়ে ঘুরতে বেরিয়ে লাশ হয়ে বাড়ি ফিরেছে জোবায়ের আহম্মেদ জিহাদ (১২)। গতকাল সোমবার দুপুরে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের টান কড্ডায় ট্রাকচাপায় তার মৃত্যু হয়।

স্থানীয় ডেফোডিয়েল প্রি-ক্যাডেট স্কুলের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র ছিল সে। ওই এলাকার মো. মুসা মিয়া ও জেবা আক্তার দম্পতির একমাত্র সন্তান। তার মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। সন্তানের মৃত্যু সংবাদ শুনে পাগলপ্রায় মা জেবা আক্তার সামনে যাকে পাচ্ছেন জড়িয়ে ধরে বলছেন, ‘ঘর থেকে বের হওয়ার সময় বলে গেছে এসে খাবে। আমি খাবার নিয়ে বসে আছি। ’

স্থানীয়রা জানায়, গতকাল দুপুর ১২টার দিকে জিহাদ সাইকেল নিয়ে বের হয়। আধা ঘণ্টা পর কড্ডা বাজারের দিকে যাওয়ার পথে টান কড্ডা সেতুতে ওঠে। গরুবোঝাই ট্রাক সাইকেলসহ তাকে চাপা দেয়। এতে তার দুই পা ও কোমর থেঁতলে যায়।

স্থানীয়রা গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে মা ও স্বজনরা হাসপাতালে ছুটে যায়। ক্ষত-বিক্ষত লাশ দেখে হাসপাতালের মর্গে মূর্ছা যান মা। সুস্থ হলে তাঁর আহাজারি ও কান্নায় হৃদয়বিদারক পরিবেশের সৃষ্টি হয়। তাঁকে সান্ত্ব্তনা দিতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়ে স্বজনরাও।

মা জানান, জিহাদের বাবা ভৈরবে একটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। আজ স্কুলে না গিয়ে ছেলে সাইকেল চালানোর জন্যে বায়না ধরে। দুপুর ১২টার দিকে সে বাড়ি থেকে বের হয়। আধা ঘণ্টা পর তার মৃত্যুর সংবাদ আসে। যাওয়ার আগে বলে যায়, ‘মা, তুমি রান্না কর। ফিরে এসে খাব। আমি তো রান্না করেছি। বসে আছি। এখন এ খাবার আমি কার মুখে দেব?’ বলে আবারও মূর্ছা যান তিনি।


মন্তব্য